করোনাপীড়িতদের কেন খাবার বিতরণ করছে মাফিয়ারা?

প্রকাশ : ১২ এপ্রিল ২০২০, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

করোনাভাইরাস পীড়িত ইতালির কিছু এলাকায় স্থানীয় দরিদ্র জনসাধারণের মাঝে খাবার বিতরণ করছে দেশটির মাফিয়া গোষ্ঠীগুলো। তবে কর্তৃপক্ষের ভয়, দরিদ্র পরিবারগুলোকে এভাবে খাবার বিতরণের মাধ্যমে আসলে নিজেদের জনসমর্থন বাড়াতে মরিয়া অপরাধী চক্রগুলো। মাফিয়ারা যাদের খাবার দিচ্ছে তাদের হাতে এমনিতেই নগদ অর্থ নেই। ফলে স্বভাবতই এসব খাবার তাদের কিছুটা হলেও স্বস্তি এনে দিচ্ছে।

সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে এমন কিছু ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে যেগুলোতে দেখা যাচ্ছে মাফিয়া গ্যাংগুলো লোকজনের কাছে প্রয়োজনীয় পণ্যসামগ্রী সরবরাহ করছে। করোনাভাইরাস আক্রান্ত দারিদ্র্যপীড়িত দক্ষিণাঞ্চলীয় ক্যাম্পানিয়া, ক্যালাব্রিয়া, সিসিলি ও পুগলিয়ার মতো এলাকাগুলোতে তাদের তৎপরতা দেখা যাচ্ছে। মাফিয়াবিরোধী তদন্তকারী এবং কাতানজারো প্রসিকিউটর কার্যালয়ের প্রধান নিকোলা গ্রেটারি। দ্য গার্ডিয়ানকে তিনি বলেন, ‘এক মাসেরও বেশি সময় ধরে দোকান, ক্যাফে, রেস্তোরাঁ ও বারগুলো বন্ধ রয়েছে।’

নিকোলা গ্রেটারি বলেন, কয়েক মিলিয়ন মানুষ ধূসর অর্থনীতিতে কাজ করে। এক মাসেরও বেশি সময় ধরে তাদের কোনো উপার্জন নেই। কখন কাজে ফিরতে পারবে সে ব্যাপারেও তাদের কোনো ধারণা নেই। জনগণকে সহায়তার জন্য সরকার কথিত শপিং ভাউচার ইস্যু করছে। রাষ্ট্র যদি শিগগিরই এই পরিবারগুলোকে সহায়তার উদ্যোগ না নেয় তাহলে মাফিয়ারা তাদের মধ্যে এই পরিষেবাগুলো সরবরাহ করবে। এর মধ্য দিয়ে তারা এই মানুষগুলোর জীবনের ওপর নিজেদের নিয়ন্ত্রণ চাপিয়ে দেবে।

ভেনিসভিত্তিক ক্ষুদ্র ব্যবসায়িক সংস্থা সিজিআইএ মেস্ট্রের সাম্প্রতিক পরিসংখ্যান অনুযায়ী, লকডাউনের বিড়ম্বনায় ইতালিতে কম-বেশি ৩৩ লাখ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত বা কর্মহীন হয়ে পড়েছে। তাদের মধ্যে ১০ লাখেরও বেশি মানুষের বাস দক্ষিণাঞ্চলীয় এলাকাগুলোতে। ছোট দোকান মালিকদের বিনামূল্যে খাবার দেওয়ার জন্য চাপ দেওয়া হচ্ছে বলে খবর পাওয়া গেছে। অন্যদিকে পুলিশ চুরি বন্ধে কয়েকটি এলাকায় সুপার মার্কেটগুলোতে টহল দিচ্ছে।

সরকারের স্থবিরতা বা নিষ্ক্রিয়তার বিরুদ্ধে সিসিলিতে নাগরিকদের প্রতিবাদের আওয়াজ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। ৪৪ ডলারের ঋণের জন্য ব্যাংকের বাইরে তাদের মুষ্টিবদ্ধ হাত নজর কেড়েছে। এসব ঘটনা বিদ্যমান সংকটের আগুনে যেন ঘি ঢেলে দিয়েছে। আর এই আগুনে ইন্ধন জোগানোর চেয়েও বেশি কিছু করছে মাফিয়ারা।

সামাজিক অস্থিরতার প্রথম থেকেই এ নিয়ে কথা বলে আসছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী লুজিয়ানা ল্যামারগেস। তার মতে, ক্রমবর্ধমান দারিদ্র্যের সুযোগ নিতে পারে মাফিয়ারা। তারা লোকজনকে নিজেদের দলে টানার উদ্যোগ নিতে পারে। এজন্য তারা পাস্তা, পানি, ময়দা ও দুধের মতো খাদ্যসামগ্রী বিতরণের উদ্যোগ নিতে পারে।

 

"