ভারতকে ‘যথাযোগ্য উত্তর’ দেওয়ার হুশিয়ারি ট্রাম্পের

প্রকাশ : ০৮ এপ্রিল ২০২০, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

করোনাভাইরাসে এখন পর্যন্ত বিশ্বে সবচেয়ে বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। বাড়ছে নতুন আক্রান্তের সংখ্যাও। উদ্ভূত পরিস্থিতি সামাল দিতে নানামুখী প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে গত শনিবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে ফোন করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এ সময় ভারতে করোনা চিকিৎসায় ব্যবহৃত ম্যালেরিয়ার প্রতিষেধক হাইড্রোক্লোরোকুইন রফতানির ওপর বিদ্যমান বিধিনিষেধ প্রত্যাহার করার অনুরোধ জানান তিনি। একই সঙ্গে ইঙ্গিত দেন, এ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার না করলে দিল্লিকে ‘যথাযোগ্য উত্তর’ দিতে পারে ওয়াশিংটন। গতকাল মঙ্গলবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি। গত সোমবার হোয়াইট হাউসে করোনাভাইরাস টাস্কফোর্সের ব্রিফিংয়েও এ নিয়ে কথা বলেন ট্রাম্প। তিনি বলেন, ‘ভারত যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে খুব ভালো ব্যবহার করছে। আমি যুক্তরাষ্ট্রে ওষুধ রফতানির ওপর তাদের নিষেধাজ্ঞা জারির মতো কোনো কারণ দেখতে পাচ্ছি না। গত রোববার সকালে প্রধানমন্ত্রী মোদির সঙ্গে কথা বলেছি। আমি তাকে বলেছি, আপনি যদি হাইড্রোক্লোরোকুইন সরবরাহের ব্যবস্থা করেন তবে আমরা আপনার এই উদ্যোগেক সম্মান জানাব। আর যদি সরবরাহের অনুমতি না দেন, তাহলেও ঠিক আছে! কিন্তু হ্যাঁ! এরপর আমাদের কাছ থেকেও এমনই ব্যবহার পাবেন।’ এর আগেও যুক্তরাষ্ট্র করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য ভারত থেকে এই ওষুধ রফতানির অনুরোধ জানিয়েছে। ট্রাম্প জানান, ভারতে করোনার চিকিৎসায় ব্যবহৃত হাইড্রোক্লোরোকুইন যেন যুক্তরাষ্ট্রে পাঠানো হয় তার জন্য মোদিকে অনুরোধ করেছেন তিনি। এমনকি নিজেও এই ওষুধ খাবেন বলে জানান ট্রাম্প। গতকাল মঙ্গলবার সকালে যুক্তরাষ্ট্রের জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয় জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লাখ ৬৮ হাজার ১৯৬।

এর মধ্যে ১০ হাজার ৯৮৬ জনের মৃত্যু হয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্যের অবস্থা সবচেয়ে ভয়াবহ। সেখানে করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছে সাড়ে ৩ হাজারের বেশি মানুষ, যা যুক্তরাষ্ট্রের মোট প্রাণহানির ৪০ ভাগেরও বেশি।

 

"