অডিও বার্তায় মাওলানা সাদ

সেলফ কোয়ারেন্টাইনে আছি

প্রকাশ : ০৪ এপ্রিল ২০২০, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

জনসমাগমের মধ্য দিয়ে করোনাভাইরাস ছড়ানোর অভিযোগে মামলা দায়েরের পর ভারতের তাবলিগ জামাতের প্রধান মাওলানা সাদ কান্দালভিসহ সাতজনের খোঁজে তল্লাশি শুরু হয়েছে। দিল্লি পুলিশ সূত্রে সম্প্রচারমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, উত্তর প্রদেশের মোজাফফরনগরসহ দিল্লির বিভিন্ন স্থানে তল্লাশি চালিয়েও তাদের সন্ধান পাওয়া যায়নি। তবে মাওলানা সাদকে খুঁজে না পাওয়া গেলেও অডিও বার্তায় তিনি সেলফ কোয়ারেন্টাইনে থাকার কথা জানিয়েছেন। অনুসারীদের দিয়েছেন সরকারি নির্দেশনা মানার পরামর্শ।

গত ১ মার্চ দিল্লির নিজামুদ্দিন মারকাজ মসজিদে মুসলিম ধর্মাবলম্বীদের সংগঠন তাবলিগ জামাতের একটি ধর্মীয় সমাবেশ শুরু হয়। মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, সৌদি আরব ও কিরগিজস্তানের প্রতিনিধিসহ প্রায় ২ হাজার মানুষ ওই আয়োজনে অংশ নেন। ১৫ মার্চ অনুষ্ঠান শেষ হওয়ার পরও অনেকে সেখানে থেকে যান।

এরই মধ্যে ওই আয়োজনে অংশ নেওয়া প্রায় ৪০০ জনের করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে এই সমাবেশ করায় তাবলিগ জামাতের প্রধান মাওলানা সাদসহ সাতজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে দিল্লি পুলিশ। সর্বশেষ গত ২৮ মার্চ তাকে প্রকাশ্যে দেখা যায়। এনডিটিভি জানিয়েছে, মাওলানা সাদও করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। মামলা দায়েরের পর তার খোঁজে অন্তত ১৪টি হাসপাতালে তল্লাশি চালানো হয়েছে।

গত বুধবার প্রকাশ হয়েছে মাওলানা সাদের দুটি অডিও ক্লিপ। তিনি দাবি করেছেন ডাক্তারের পরামর্শে দিল্লিতে সেল্ফ কোয়ারেন্টাইনে আছেন। মারকাজ ইউটিউব চ্যানেলে প্রকাশিত প্রথম অডিও বার্তায় তাকে বলতে শোনা যায়, মৃত্যুর সবচেয়ে ভালো জায়গা হলো মসজিদ। তিনি জোর দিয়ে বলেন করোনাভাইরাস তার অনুসারীদের কোনো ক্ষতি করতে পারবে না।

দ্বিতীয় অডিও বার্তায় তিনি তাবলিগের সদস্যদের সরকারি নির্দেশনা মেনে নিয়ে ভিড় এড়িয়ে চলার আহ্বান জানান। এতে তিনি বলেন, ‘নিঃসন্দেহে এখন দুনিয়ায় যা কিছু ঘটছে তা মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধের ফল। আমাদের বাড়িতে থাকা উচিত, আল্লাহর ক্রোধ প্রশমনের সেটাই একমাত্র পথ। প্রত্যেকের ডাক্তারের পরামর্শ মেনে চলা এবং প্রশাসনের সঙ্গে সহযোগিতা করা উচিত।’

 

"