অবশেষে নামার অনুমতি পেলেন গ্র্যান্ড প্রিন্সেসের যাত্রীরা

প্রকাশ : ১১ মার্চ ২০২০, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাস সংক্রমিত প্রমোদতরী গ্র্যান্ড প্রিন্সেসের যাত্রীদের নামিয়ে নেওয়া শুরু হয়েছে। টানা পাঁচ দিন সান ফ্রান্সিসকো বন্দরে অপেক্ষার পর অবশেষে এ অনুমতি পেলেন তারা। স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, গত সোমবার অকল্যান্ডে নোঙ্গর করেছে প্রমোদতরীটি। গতকাল মঙ্গলবারই এর সব যাত্রী নামিয়ে নেওয়া হয়।

অকল্যান্ডের মেয়র লিব্বি শাফ বলেন, এ শহরে কাউকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে না বা কাউকে আমাদের সম্প্রদায়ের মধ্যেও মিশতে দেওয়া হবে না। জানা যায়, জাহাজটির অসুস্থ যাত্রীদের সরাসরি হাসপাতালে ভর্তি করা হচ্ছে। এর মার্কিন যাত্রীদের ক্যালিফোর্নিয়ায় সামরিক ঘাঁটিতে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে। আর বিদেশি যাত্রীদের নিজ নিজ দেশে ফেরত পাঠানো হবে। জাহাজটিতে অন্তত ৫৪টি দেশের মোট ২ হাজার ৪২২ জন যাত্রী ও ১ হাজার ১১১ জন ক্রু রয়েছেন।

গ্র্যান্ড প্রিন্সেসে ভ্রমণ করা এক যাত্রী গত সপ্তাহে করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়ার পরপরই জাহাজটিকে বন্দরে আটকে দেয় মার্কিন প্রশাসন। পরে সন্দেহভাজন ৪৬ আরোহীর শারীরিক পরীক্ষায় ২১ জনের শরীরে করোনাভাইরাস ধরা পড়ে। আক্রান্তদের মধ্যে ১৯ জন যাত্রী ও দুজন ক্রু রয়েছেন। ট্রাম্প প্রশাসনের এক কর্মকর্তা জানান, গ্র্যান্ড প্রিন্সেসের ক্রুরা জাহাজেই কোয়ারেন্টাইনে থাকবেন। যাত্রী নামানো শেষ হলেই সেটি অকল্যান্ড বন্দর ছেড়ে যাবে।

এর আগে, গত মাসে প্রিন্সেস ক্রুজের মালিকানাধীন আরেকটি প্রমোদতরী ডায়মন্ড প্রিন্সেস জাপানের ইয়োকোহামা বন্দরে কোয়ারেন্টাইনে ছিল। সেখানে দুই সপ্তাহের বেশি আটকা (কোয়ারেন্টাইন) ছিলেন অন্তত ৩ হাজার ৭০০ আরোহী। এ পর্যন্ত জাহাজটির সাত শতাধিক যাত্রী করোনা আক্রান্ত হয়েছেন, মারা গেছেন ছয়জন। যুক্তরাষ্ট্রে এ পর্যন্ত ৭০৮ জনের শরীরে করোনাভাইরাস ধরা পড়েছে, মারা গেছেন ২৭ জন।

 

"