‘ইউরোপ প্রতিশ্রুতি পালন না করলে ইরানের পদক্ষেপ ত্বরান্বিত হবে’

প্রকাশ : ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ইরানের পরমাণু শক্তি সংস্থার প্রধান বলেছেন: পরমাণু সমঝোতার বিষয়টি একতরফা নয় এবং ইরান যথাসময়ে যথাযথ পদক্ষেপ নেবে। আলী আকবর সালেহি গতকাল (রোববার) তেহরানে আন্তর্জাতিক পরমাণু শক্তি সংস্থার (আইএইএ) ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক কর্নেল ফেরুতার সাথে সাক্ষাত শেষে পরমাণু সমঝোতার ব্যাপারে ইউরোপের ভূমিকার সমালোচনা করে বলেছেন, ২০১৮র মেতে আমেরিকা চুক্তি থেকে বেরিয়ে যাবার পর ইউরোপীয় দেশগুলো তাদের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে ব্যর্থ হয়েছে। দীর্ঘ আলোচনার পর ২০১৫ সালে স্বাক্ষরিত বহুপাক্ষিক এই চুক্তি কার্যত এখন একতরফা হয়ে পড়েছে। যদিও আমেরিকা বেরিয়ে যাবার পরও ইরান সদিচ্ছার পরিচয় দিয়ে চুক্তি মেনে চলেছে। চুক্তি থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বেরিয়ে যাবার এক বছর পর (৮ মে,২০১৯) ইউরোপও যখন প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে ব্যর্থ হয়েছে, তখনই ইরান যথোপযুক্ত এবং প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ হাতে নিয়েছে। ইরান পরমাণু সমঝোতার ২৬ এবং ৩৬ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন স্থগিত রাখার ব্যাপারে এ পর্যন্ত তিনটি পদক্ষেপ নিয়েছে। তৃতীয় পদক্ষেপটি হলো পারমাণবিক গবেষণা ও উন্নয়নের ওপর আরোপিত বিধিনিষেধগুলো তুলে নেয়া। তৃতীয় পদক্ষেপটি নিয়েছে গত ৬ সেপ্টেম্বর।

ইরান ওই পদক্ষেপের বিবরণ আইএইএর ভারপ্রাপ্ত প্রধানের তেহরান সফরকালে তার কাছে উপস্থাপন করেছে। ইউরোপের কার্যক্রমের ওপর নির্ভর করে তাদের ব্যাপারে ইরান যথাসময়ে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেবে বলেও জানানো হয়েছে। ইউরোপীয় পক্ষ যতক্ষণ পর্যন্ত প্রতিশ্রুতি পূরণে সফল না হবে ততক্ষণ ইরানও তাদের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের মাত্রা কমাতে থাকবে। যে তিনটি পদক্ষেপ নিয়েছে ইরান সে ব্যাপারে ইউরোপীয় পক্ষ হাস্যকর রাজনৈতিক খেলা খেলছে। তারা বলছে: ইরান যতদিন প্রতিশ্রুতিবদ্ধ থাকবে আমরাও ততদিনই প্রতিশ্রুতি মেনে চলবো। অথচ ইরানের নেয়া পদক্ষেপগুলো ছিল ইউরোপকে সতর্ক করা, হুশিয়ারি দেওয়া। তবে ইরান বলেছে ইউরোপীয় পক্ষগুলো ইরানের স্বার্থ যতটুকু মেনে নেবে ইরান ততটুকুই প্রতিশ্রুতি মেনে চলবে। ইরানের পরমাণু শক্তি সংস্থার মুখপাত্র বেহরুজ কামালভান্দি বলেছেন, তেহরান জাতীয় স্বার্থের ভিত্তিতে যে-কোনো সিদ্ধান্ত নেয়।

ইউরোপ যদি প্রতিশ্রুতি পালন না করে ইরানও দ্রুততার সঙ্গে পদক্ষেপ নেবে।

 

"