গাজায় ইসরায়েলের হামলায় বড় ধরনের উত্তেজনার শঙ্কা

প্রকাশ : ১৬ মার্চ ২০১৯, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাস নিয়ন্ত্রিত গাজায় দফায় দফায় বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল। গাজা থেকে তেল আবিবের উদ্দেশ্যে রকেট ছোড়ার জবাবে এ হামলা চালানো হয়েছে বলে জানিয়েছে ইসরায়েল। এ নিয়ে নতুন করে বড় ধরনের উত্তেজনা ছড়ানোর আশঙ্কা করা হচ্ছে। স্থানীয়দের বরাত দিয়ে আলজাজিরা বলছে, গতকাল শুক্রবার ভোরে গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলের বিমান হামলার শব্দ শোনা গেছে। হামাসের নিরাপত্তা ঘাঁটি লক্ষ্য করে অন্তত ৩০ বার হামলা চালানো হয়েছে।

ফিলিস্তিনি সূত্রের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, হামাসের সামরিক শাখা ও এর মিত্র ইসলামিক জিহাদের অবস্থান লক্ষ্য করে ওইসব হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল। এতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। আলজাজিরা বলছে, স্থানীয় সংবাদ সংস্থাগুলো জানিয়েছে, হামলায় দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর রাফায় এক নারী ও তার স্বামী আহত হয়েছেন। তবে এ ব্যাপারে বিস্তারিত কিছু বলা হয়নি।

তবে ইসরায়েলি সামরিক বাহিনী বলছে, তারা গাজায় ‘সন্ত্রাসী ঘাঁটি’তে হামলা চালাচ্ছে। গাজা থেকে তেল আবিবের কাছে দুটি রকেট ছোড়ার পরই এসব হামলা চালানো হয়েছে বলেও দাবি করা হয়। টুইটারে ইসরায়েলের সেনাবাহিনী বলেছে, ‘হামাসের অন্তত ১০০টি সামরিক অবস্থান’ টার্গেট করা হয়েছে।

আলজাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, তেল আবিবের দিকে রকেট ছোড়ার অর্থ হলোÑ বড় ধরনের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটতে যাচ্ছে। কারণ এর জবাবে ইসরায়েল ব্যাপক অভিযান চালাতে পারে। তবে হামাসের পক্ষ থেকে রকেট ছোড়ার দায় অস্বীকার করে বলা হয়েছে, তাদের সামরিক শাখার সঙ্গে মিসরীয় কর্তৃপক্ষের বৈঠক চলার সময় রকেট নিক্ষেপ করা হয়েছে। ইসরায়েলের সঙ্গে যুদ্ধবিরতি বাড়ানোর উদ্দেশ্যে মিসরীয় মধ্যস্থতাকারীদের সঙ্গে ওই আলোচনা হচ্ছিল।

 

"