সংবাদ সম্মেলনে নিউজিল্যান্ড প্রধানমন্ত্রী

আজ দেশের অন্ধকারতম দিনগুলোর একটি

প্রকাশ : ১৬ মার্চ ২০১৯, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

ক্রাইস্টচার্চের দুটি এলাকার মসজিদে গতকাল শুক্রবার বন্দুকধারীর হামলার পর একে ‘নিউজিল্যান্ডের অন্ধকারতম দিনগুলোর একটি’ বলে আখ্যা দিয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন। নিউজিল্যান্ডে এ ধরনের হামলাকে ‘নজিরবিহীন সহিংস কর্মককাণ্ড’ বলেও উল্লেখ করেছেন তিনি। গতকাল শুক্রবার নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে বন্দুকধারীর হামলা হয়। শহরের হাগলি পার্কমুখী সড়ক ডিনস এভিনিউতে আল নুর মসজিদ এবং লিনউডের আরেকটি মসজিদের কাছ থেকে গুলির শব্দ শোনা যায়। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে পুলিশের বরাত দিয়ে ঘটনাটিকে ‘মারাত্মক’ বলা হয়েছে। হামলার পর পুলিশের তরফ থেকে বেশ কয়েকজন হতাহত হওয়ার কথা জানালেও এখন পর্যন্ত সংখ্যা নিশ্চিত করা হয়নি। এরই মধ্যে এক সন্দেহভাজন বন্দুকধারীকে আটক করেছে পুলিশ। আর কোনো বন্দুকধারী পালিয়ে আছে কি না তা নিশ্চিত হতে অভিযান চলছে। হামলার পর জাতির উদ্দেশ্যে দেওয়া বক্তব্যে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন। তিনি বলেন, ‘এ মুহূর্তে প্রাণহানির সংখ্যা আমি নিশ্চিত করতে পারব না। তবে এটা স্পষ্ট করে বলতে পারি যে এ দিনটি নিউজিল্যান্ডের অন্ধকারতম দিনগুলোর একটি।’

জাসিন্ডা আরো বলেন, নিউজিল্যান্ডে ‘দুষ্কৃতকারীদের কোনো জায়গা নেই’। তার দাবি, অভিবাসী, শরণার্থীসহ হামলার শিকার হওয়া সবাই নিউজিল্যান্ডের অংশ, কিন্তু দুষ্কৃতকারীরা নয়। নিউজিল্যান্ডের সমাজে এ ধরনের সহিংস হামলার কোনো জায়গা নেই বলেও হুশিয়ার করেন তিনি।

জাসিন্ডা জানান, ক্রাইস্টচার্চে হামলার শিকার হওয়া মানুষদের কাছে তার মন পড়ে আছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে বলা হয়, কথা বলার সময় কোনো রকমে কান্না আটকে রাখছিলেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী।

 

"