আটক হলেন ইথিওপিয়ার স্বঘোষিত ‘নবী’

প্রকাশ : ২৩ জুলাই ২০১৮, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

মৃত এক ব্যক্তিকে আবার জীবিত করার ব্যর্থ চেষ্টার পর নবী হতে চাওয়া এক ব্যক্তিকে আটক করেছে ইথিওপিয়ার পুলিশ। বেলায় বিফতু নামে এক ব্যক্তির মৃতদেহের ওপর শুয়ে ‘বেলায়, জেগে ওঠো’ জপতে জপতে গেতাইয়াওকাল আয়েলে তাকে জীবিত করার চেষ্টা চালিয়েছিলেন। তার এ চেষ্টা সফল হয়নি। ক্ষুব্ধ বেলায়ের আত্মীয়স্বজন পরে গেতাইয়াওকালকে মারতে শুরু করলে পুলিশ এসে তাকে উদ্ধার করে। ইথিওপিয়ার আইনে মৃতদেহের অমর্যাদা অপরাধ বলে গণ্য হওয়ায় মৃতের স্বজনের হাত থেকে রক্ষা পেলেও সহসাই বিপদ কাটছে না গেতাইয়াওকালের। ঘটনার পর থেকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হেফাজতে আছেন তিনি। গেতাইয়াওকাল স্বাস্থ্যকর্মী হিসেবে কাজ করতেন বলে স্থানীয় পুলিশের এক কমান্ডার জানিয়েছেন। মৃতদেহ পুনরুত্থানের এ চেষ্টার ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও ভাইরাল হয়ে গেছে বলে জানিয়েছে বিবিসি। গেতাইওয়াকাল প্রথমে মৃতবেলায় বিফতুর শোকার্ত পরিবারের কাছে গিয়ে তাদের বাইবেলের লাজারাসের কাহিনিটি শোনান বলে ইথিওপিয়ার ওরোমিয়া অঞ্চলের পশ্চিমাঞ্চলীয় ছোট শহর গালিলির বাসিন্দারা জানিয়েছেন। নিউ টেস্টামেন্ট অনুযায়ী, খ্রিস্টান ধর্মের প্রাণপুরুষ যিশু মৃত লাজারাসকে জীবিত করে তুলেছিলেন। বাইবেলের কাহিনিতে আপ্লুত বিফতুর পরিবার পরে কবর খুঁড়তে সম্মতি দেয়। মৃতকে জীবিত করতে গেতাইয়াওকালের ব্যর্থ চেষ্টার পর বিফতুর পরিবারের বেশ কয়েকজন সদস্য অকুস্থলেই বেহুঁশ হয়ে পড়েন; ক্রুদ্ধ অন্য সদস্যরা পেটাতে শুরু করলে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে উপস্থিত হয় এবং গেতাইয়াওকালকে আটক করে।

"