সামরিক সম্পর্ক বাড়াতে চায় পাকিস্তান-ইরান

প্রকাশ : ১৮ জুলাই ২০১৮, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

পাকিস্তান ও ইরান উভয় দেশের মধ্যে সামরিক সহযোগিতা আরো গভীর করার ইচ্ছা পোষণ করেছে। ইরানের সেনাপ্রধান মেজর জেনারেল মোহাম্মদ বাকেরির পাকিস্তান সফরে এই প্রতিশ্রুতির বিষয়ে সম্মত হয় দুই দেশ।

পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম ডন জানায়, ইরানের সেনাপ্রধান তিন দিনের পাকিস্তান সফরে রয়েছেন। উভয় দেশের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় সামরিক সম্পর্ক বিরল থাকার কারণে এই সফর বেশ গুরুত্ব বহন করছে। সন্দেহ আর অবিশ্বাস উভয় দেশকে দূরে রেখেছে এতদিন।

তিন দিনের সফরে ইরানি সেনাপ্রধান পাকিস্তানের তত্ত্বাবধায়ক সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদুল্লাহ হোসাইন হারুনের সঙ্গে বৈঠক করেন। পরে তিনি পাকিস্তানি সেনাপ্রধান জেনারেল কামার বাজওয়ার সঙ্গে মিলিত হন।

পাকিস্তান সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, জেনারেল বাজওয়া বৈঠকে উভয় দেশের সেনাবাহিনীর মধ্যকার সহযোগিতা বৃদ্ধির ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন। এই সহযোগিতা এই অঞ্চলে শান্তি ও নিরাপত্তায় গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব রাখবে।

ইরানের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম পার্স টুডে জানায়, সোমবার রাতে মেজর জেনারেল মোহাম্মাদ বাকেরি ইসলামাবাদে পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট মামনুন হোসেইনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। সাক্ষাতে পাকিস্তানের সঙ্গে যৌথভাবে প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম নির্মাণের আগ্রহ প্রকাশ করেন তিনি। সাক্ষাতে তিনি বলেন, পাকিস্তানের সঙ্গে যৌথভাবে সমরাস্ত্র নির্মাণ করে আমরা সেসব অস্ত্রকে ‘যৌথ ইসলামী পণ্য’ হিসেবে অভিহিত করতে চাই।

সাক্ষাতে নিরাপত্তা ও প্রতিরক্ষা খাতসহ সব ক্ষেত্রে ইসলামাবাদ এবং তেহরানের মধ্য সহযোগিতা শক্তিশালী হওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করেন মামনুন হোসেইন। তিনি বলেন, ইরান ও পাকিস্তানের মধ্যে সহযোগিতা জোরদার আঞ্চলিক শান্তি ও স্থিতিশীলতা নিশ্চিত করবে।

পাকিস্তানের প্রেসিডেন্ট প্রাসাদে অনুষ্ঠিত বৈঠকে দুই পক্ষ নিজেদের মধ্যকার প্রায় এক হাজার কিলোমিটার দীর্ঘ সীমান্তের কথা উল্লেখ করে সব ক্ষেত্রে সহযোগিতা জোরদার করার আগ্রহ প্রকাশ করেন।

এর আগে সোমবার বিকালে পাকিস্তান নৌবাহিনী প্রধান অ্যাডমিরাল জাফর মাহমুদ আব্বাসির সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন জেনারেল মোহাম্মাদ বাকেরি। পাকিস্তানের সেনাপ্রধানের আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে গত রোববার থেকে তিনি ইসলামবাদ সফর করেন।

"