‘তেলআবিবকে মাটির সঙ্গে মিশিয়ে দেওয়া হবে’

প্রকাশ : ১২ মে ২০১৮, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

যুক্তরাষ্ট্র বা ইউরোপ কারো ওপর আস্থা রাখা যায় না এবং প্রতিশ্রুতি লঙ্ঘনের দিক দিয়ে ওয়াশিংটনের চেয়ে ব্রাসেলস কোনো অংশে কম নয় বলে মন্তব্য করেছেন তেহরানের কেন্দ্রীয় মসিজদের জুমার নামাজের খতিব আয়াতুল্লাহ আহমাদ খাতামি। ইরানের পরমাণু সমঝোতা থেকে যুক্তরাষ্ট্র বের হয়ে যাওয়ার ঘোষণা সম্পর্কে প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে গতকাল জুমার নামাজের সময় তিনি এ কথা বলেন। আয়াতুল্লাহ খাতামি বলেন, ইরান কত কিলোমিটার পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র তৈরি করবে সে সম্পর্কে যুক্তরাষ্ট্র বা ইউরোপের মতামতের ধার ধারবে না তেহরান। পরমাণু সমঝোতা পুরোপুরি কার্যকর করতে এবং ইরানের ক্ষতি পুষিয়ে দিতে তেহরান ইউরোপকে যে সময় বেঁধে দিয়েছে তা পার হলে ইরানও এ সমঝোতা থেকে বেরিয়ে যাবে বলে তিনি হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন। ইরান শক্তিমত্তার সঙ্গে নিজের সামরিক সক্ষমতা শক্তিশালী করে যাবে বলে সতর্ক করে দেন আয়াতুল্লাহ খাতামি। তিনি বলেন, ইসরাইল উন্মাদনা দেখালে তেলআবিব ও হাইফাকে মাটির সঙ্গে মিশিয়ে দেওয়া হবে।

সৌদি আরব, বাহরাইন ও সংযুক্ত আরব আমিরাতকে যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরাইলের সহযোগী হিসেবে উল্লেখ করে আয়াতুল্লাহ খাতামি বলেন, মধ্যপ্রাচ্যে গোলযোগ দেখা দিলে আমেরিকার আগে এই তিন দেশকে মরতে হবে। তেহরানের জুমার নামাজের খতিব লেবাননের পার্লামেন্ট নির্বাচনে বিজয় লাভ করায় হিজবুল্লাহকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, এ নির্বাচনের মাধ্যমে ইসরাইলবিরোধী প্রতিরোধ শক্তির বিজয় ও সৌদি আরবের পরাজয় হয়েছে।

 

"