সিরিয়ায় সম্ভাব্য হামলা

এয়ারলাইনসগুলোকে সতর্ক করল ইউরোকন্ট্রোল

প্রকাশ : ১২ এপ্রিল ২০১৮, ০০:০০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

আগামী কয়েক দিনের মধ্যে সিরিয়ায় ক্ষেপণাস্ত্র হামলা হতে পারে এমন শঙ্কায় এয়ারলাইনসগুলো পরবর্তী ৭২ ঘণ্টা ভূমধ্যসাগরের পূর্বাঞ্চল দিয়ে চলাচলের বিষয়ে সতর্ক করেছে ইউরোকন্ট্রোল। গত মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে এ সতর্কতা জানায় প্যান-ইউরোপীয় এয়ার ট্র্যাফিক নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি।

উল্লিখিত সময়ের মধ্যে আকাশ থেকে ভূমিতে কিংবা ভূমি থেকে আকাশে ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়ার সম্ভাব্যতার কথা জানিয়ে এর জন্য বেতার নেভিগেশনের কার্যক্রম বিঘিœত হতে পারে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেছে সংস্থাটি।

সিরিয়ার দৌমায় কথিত সরকারি বাহিনীর রাসায়নিক গ্যাস হামলা চালানোর প্রতিক্রিয়ায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও তার পশ্চিমা মিত্রদের সম্ভাব্য যৌথ আক্রমণের পরিকল্পনা নিয়ে আলোচনার মধ্যে ইউরোকন্ট্রোলের এ সতর্ক বার্তা এলো। খবর রয়টার্সের।

শনিবার আসাদবাহিনী দৌমায় বিষাক্ত গ্যাস হামলা চালায় বলে অভিযোগ বিদ্রোহী গোষ্ঠী জইশ আল ইসলাম ও পশ্চিমা বিভিন্ন পর্যবেক্ষক সংস্থার। অভিযোগের পরপরই এ নিয়ে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া দেখায় ওয়াশিংটন ও এর ইউরোপীয় মিত্ররা। সিরিয়ার ঘটনায় মনোযোগী হতে এবং প্রতিক্রিয়া জানাতে ট্রাম্প চলতি সপ্তাহে তার পূর্বনির্ধারিত লাতিন আমেরিকা সফর বাতিল করেছেন বলে মঙ্গলবার জানিয়েছে হোয়াইট হাউস। আগের দিনই মার্কিন প্রেসিডেন্ট সিরিয়ার ঘটনায় দ্রুত কড়া প্রতিক্রিয়া দেখানোর হুশিয়ারি দিয়েছিলেন।

সম্ভাব্য এ ক্ষেপণাস্ত্র হামলা কোথা থেকে হতে পারে, ওয়েবসাইটে দেওয়া সতর্কবার্তায় তা সুনির্দিষ্ট করে বলেনি ইউরোকন্ট্রোল। শুধু বলেছে, পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে সিরিয়ার ওপর আকাশ থেকে ভূমিতে কিংবা ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে হামলার সম্ভাবনা থাকায় এবং একই কারণে বেতার নেভিগেশন সরঞ্জামের কার্যক্রম বিঘিœত হওয়ার আশঙ্কা থাকায় পূর্ব ভূমধ্যসাগর কিংবা নিকোসিয়া এফআইআর এলাকার ওপর দিয়ে বিমান পরিচালনার পরিকল্পনার ক্ষেত্রে যথাযথ বিবেচনা প্রয়োজন।

এর আগেই যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স ও জার্মানিসহ বিভিন্ন দেশের বিমান চলাচল নিয়ন্ত্রক সংস্থাগুলো সিরিয়ার আকাশসীমা ব্যবহারের বিষয়ে সতর্ক করেছিল। যাত্রীবাহী বিমানগুলো ওই এলাকা এড়িয়ে চলারও পরামর্শ দিয়েছিল।

এ সময়ের মধ্যে কেবল বুধবার জিএমটি ১টা ১৫ মিনিটে সিরিয়ান এয়ার ও মিডল ইস্ট এয়ারলাইনসের যাত্রীবাহী বিমান সিরিয়ার আকাশে থাকবে বলে ফ্লাইট ট্র্যাকিং ওয়েবসাইট ফ্লাইটরাডার টোয়েন্টিফোর জানিয়েছে।

ইউরোকন্ট্রোলের বিবৃতিতে দামেস্কের নিয়ন্ত্রণে থাকা আকাশসীমার বাইরেও বিস্তৃত এলাকার ব্যাপারে সতর্ক করা হয়েছে।

গত মঙ্গলবারের বিবৃতিতে সংস্থাটি নিকোসিয়া এফআইআর নামে যে এলাকাকে চিহ্নিত করেছে তার মধ্যে সাইপ্রাস দ্বীপ এবং সংলগ্ন জলসীমাও আছে বলে সংস্থাটির ওয়েবসাইটে দেওয়া মানচিত্রে দেখা গেছে। একই মানচিত্রে ‘পূর্ব ভূমধ্যসাগর’ এলাকাকে চিহ্নিত করা যায়নি বলে জানিয়েছে।

ইউরোপীয় বিমান চলাচল নিরাপত্তা সংস্থার নথির বরাত দিয়ে ইউরোকন্ট্রোল এই সতর্কতা জারির কথা জানিয়েছে। তাৎক্ষণিকভাবে ইউরোপিয়ান এভিয়েশন সেফটি এজেন্সির ওই নথির কপি পাওয়া যায়নি বলে ভাষ্য রয়টার্সের।

ভূমি থেকে আকাশে নিক্ষিপ্ত একটি ক্ষেপণাস্ত্র ২০১৪ সালে ইউক্রেনের ওপর দিয়ে যাওয়া মালয়েশীয় এয়ারলাইনসের এমএইচ১৭ বিমানকে ভূপাতিত করলে বিমানটিতে থাকা ২৯৮ যাত্রীর সবাই মারা পড়েন। ওই ঘটনার পর থেকে বিমান পরিবহনকারী সংস্থা ও নিয়ন্ত্রক সংস্থাগুলো বিরোধপূর্ণ অঞ্চলের ওপর দিয়ে যাত্রীবাহী বিমান চলাচলে ঝুঁকির ব্যাপারে সতর্কতা জারি করে আসছে।

গত বছর কোরীয় উপদ্বীপে আগাম জানান না দিয়েই উত্তর কোরিয়ার একের পর এক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার কারণেও অনেক এয়ারলাইনস জাপান সাগর এড়িয়ে অন্য দিক দিয়ে গন্তব্যে যাওয়ার পথ পুনর্নির্ধারণ করেছিল।

"