চারজন বাসিন্দার একজন মেয়র

প্রকাশ : ০৬ জুলাই ২০১৭, ০০:০০

হরেক রকম ডেস্ক

শুনলে অবিশ্বাস্য মনে হলেও ঘটনা সত্য! এক শহরের বাসিন্দা মাত্র চারজন। তাদের মধ্যে আবার একজন মেয়রও আছেন। শুধু তাই নয়, শহরে ডাক ব্যবস্থা থেকে শুরু করে অন্যান্য নাগরিক সেবা কার্যক্রমও চালু আছে। আর এই অদ্ভুতুড়ে শহরটি কানাডায়, টিল্ট কোভ। এটি কানাডার সবচেয়ে ছোট শহর, হয়তো পৃথিবীরও।

এই চারজন বাসিন্দা শহরটিকে খুব ভালোবাসেন এবং তারা বলেছেন, এখান থেকে চলে যাওয়ার কোনো ইচ্ছে নেই তাদের। চারজন বাসিন্দা হলেও বলা চলে সবাই একটি পরিবারেরই সদস্য। স্বামী মেয়র, মেয়রের বোন এবং তার একজন শ্যালক ওই শহরের দুজন কাউন্সিলর এবং অন্যজন শহর কর্তৃপক্ষের ক্লার্ক বা কর্মচারী। এই চারজন ছাড়া টিল্ট কোভে আর কেউই থাকে না। কানাডার নিউফাউন্ডল্যান্ড এবং ল্যাবরাডরের শহর এই টিল্ট কোভ।

চারজনের একজন মার্গারেট কলিন্স, যিনি ক্লার্ক হিসেবে কাজ করছেন, তার জন্ম এই শহরেই। এখানেই তিনি বেড়ে উঠেছেন। তিনি বলেন, টিল্ট কোভে সবচেয়ে বেশি জনসংখ্যা যখন ছিল তখন সে সংখ্যা ছিল ২০০০। আর তা হয়েছিল সেখানে মাইনিংয়ের কাজের জন্য। তখন সেখানে নাগরিকদের যা যা কিছু লাগে তার সব কিছুই তৈরি করা হয়েছিল।

কিন্তু ১৯৬৭ সালে এক দুর্ঘটনার পর এই খনিটির কাজ বন্ধ করে দেওয়া হয়। তারপর শহরের সব বাসিন্দা এখান থেকে চলে গেছে আর ফিরে আসেনি। শহরের মেয়র ডন কলিন্স বলেন, মাত্র চারজন বাসিন্দা হওয়ার কারণে তাকে খুব বেশি কাজ করতে হয় না। তবে তিনি খুশি। চিঠি সরবরাহ, আবর্জনা সংগ্রহ, রাস্তাঘাট রক্ষণাবেক্ষণের মতো কাজগুলোও তাকে দেখভাল করতে হয়। শহরে একটি জাদুঘরও আছে। তবে পুরো জীবনটাই তিনি টিল্ট কোভে কাটিয়েছেন। বাকি জীবনটাও কাটাতে চান এখানে।

"