কাজের ফাঁকে ঘণ্টায় ৫ মিনিট হাঁটুন

প্রকাশ : ০১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০

ডা. মহসীন কবির

বিশ্বায়নের এ যুগে কমে আসছে কায়িক পরিশ্রমের কাজগুলো। যারা শহুরে জীবনযাপনে অভ্যস্ত তারা সাধারণত বসে থেকেই দিনের বেশির ভাগ কাজগুলো করে থাকেন। কর্মক্ষেত্রে একটা দীর্ঘসময় বসে থেকে কাজ করার পর আবার অনেকেই বাসায়ও বসে বসে কম্পিউটার, ল্যাপটপ কিংবা স্মার্টফোনে ব্যস্ত হয়ে পড়েন। যারা সারা দিন বসে থাকার কাজ করছেন তাদের জন্য দুঃসংবাদই বলা যায়। সম্প্রতি ভারতের একদল গবেষক বলছেন, হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার একটি বড় কারণ দীর্ঘসময় টেবিল-চেয়ারে বসে থাকা। তারা তাদের গবেষণাপত্রে প্রকাশ করেছেন, যারা দীর্ঘসময় বসে থাকার কাজ করেন তাদের হার্ট শরীরে সঠিকভাবে রক্ত সঞ্চালন করতে পারে না। বিশেষ করে চেয়ারে বসে থাকলে দেহের নিচের অংশের সঙ্গে হৃদপিন্ডের রক্ত সঞ্চালনের ক্ষেত্রে ব্যাঘাত ঘটে। এ কারণে ধীরে ধীরে হৃদযন্ত্রে একটা বাড়তি চাপ সৃষ্টি হতে থাকে। অন্যদিকে দেহের নিচের অংশের মাংসপেশিগুলোও সঠিক রক্তপ্রবাহ পায় না। এতে মাংসপেশিগুলোও দুর্বল হতে থাকে। এক সময় দেখা দেয় হৃৎপিন্ড ও মাংসপেশির নানা রোগ। তবে ভয় নেই, আশার কথা হলো ওই গবেষক দল আবার এ সমস্যার সমাধানও দিয়ে দিয়েছেন। তাদের মতে, যারা সারা দিন বসে থাকার কাজ করেন বা কায়িক পরিশ্রম কম করেন তারা যদি কাজের ফাঁকে নিয়ম মেনে প্রতি ঘণ্টায় মাত্র ৫ মিনিট করে হাঁটেন তবে হৃদযন্ত্র ও দেহের নিচের অংশের মাংসপেশিগুলোতে কোনো সমস্যা হয় না। এতে হৃদযন্ত্র ও মাংসপেশিগুলো আরো শক্তিশালী হয়। তাই যারা দীর্ঘক্ষণ বসে থাকার কাজ করছেন তারা আজ থেকেই কাজের ফাঁকে নিয়ম মেনে প্রতি ঘণ্টায় ৫ মিনিট করে হাঁটুন ও সুস্থ থাকুন।

লেখক :

জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ, লেখক ও গবেষক

ইনচার্জ, ইনস্টিটিউট অব জেরিয়েট্রিক মেডিসিন

বাংলাদেশ প্রবীণহিতৈষী সংঘ, ঢাকা

 

"