প্রতিদিন ওজন মাপার প্রয়োজন নেই

প্রকাশ : ০৯ জুলাই ২০১৮, ০০:০০

ডা. মহসীন কবির লিমন

একদিন হঠাৎ কোথাও আপনি আপনার ওজনটি মাপলেন, দেখলেন দেহের ওজন অস্বাভাবিক রকম বেড়ে গেছে। আপনি কিছুটা চিন্তিত হয়ে ওজন কমাতে আপনার খাওয়া-দাওয়াসহ জীবনব্যবস্থায় একটু পরিবর্তন আনলেন। একটু বাড়তি সচেতন হতে বাসায় একটি ওজনমাপক যন্ত্রও কিনে আনলেন। প্রতিদিন দেখতে থাকলেন আপনার ওজন কতটুকু কমছে। মনে মনে একটু সান্ত¡না পেতে ওজন মাপক যন্ত্রটি ধীরে ধীরে আপনার প্রতিদিনের অনুষঙ্গ হয়ে উঠছে। যারা এমনটি করছেন তাদের জন্য খবর হলো, সম্প্রতি একদল গবেষক তাদের গবেষণা শেষে জানিয়েছেন, ওজন কমাতে শুধু খাবার তালিকায় পরিবর্তন ও নিয়মিত কিছু ব্যয়াম খুব ভালো কার্যকর। কিন্তু এ জন্য প্রতিদিন বা নিয়মিত ওজন মাপার কোনো প্রয়োজন নেই। গবেষকরা প্রায় ২০০ মোটা মানুষের ওপর এ গবেষণা চালান। গবেষণায়, তাদের দুই ভাগে ভাগ করে দিয়ে একদলকে বলা হয়, খাবার ও ব্যায়াম করার পাশাপাশি প্রতিদিন তারা নিয়মিত ওজন মেপে হিসাব রাখবে। আর একদলকে বলা হয় তারা শুধু খাবার নিয়ন্ত্রণ ও ব্যায়াম করবে কিন্তু নিয়মিত ওজনের হিসাব রাখার প্রয়োজন নেই। তিন মাস পর দুই দলের ফলাফলে দেখা গেল, যারা অতিরিক্ত সচেতন হয়ে নিয়মিত ওজন মেপেছেন এবং যারা এর মধ্যে কোনো ওজন মাপেননি তাদের ওজন কমার ফল একই। তাই যারা ওজন কমাতে নিয়মিত ওজন মাপছেন ও ওজনমাপক যন্ত্রের প্রতি আসক্ত হয়ে পড়ছেন, তাদের এ কাজটি না করলেও কোনো সমস্যা নেই। শুধু খাবার তালিকা থেকে ওজনবৃদ্ধিকারক খাবারগুলো পরিহার করুন ও সেই সঙ্গে নিয়মিত রুটিনমাফিক কিছু ব্যায়াম করুন, তবেই আপনার ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকবে। মনে রাখবেন, আপনার ওজন যদি নিয়ন্ত্রণে না থাকে তবে বার্ধক্যকালীন আপনার হাড়ক্ষয় রোগ, ব্যাকপেইন ও হাঁটুতে ব্যথা হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। তাই বার্ধক্যে ব্যথামুক্ত থাকতে চাইলে আজ থেকেই নিয়মিত ব্যয়াম শুরু করুন ও খাবার তালিকা থেকে অপ্রয়োজনীয় খাবারগুলো সরিয়ে ফেলুন।

"