ব্যথার নাম সায়াটিকা

প্রকাশ : ১১ এপ্রিল ২০১৮, ০০:০০

ডা. এম ইয়াছিন আলী

সায়াটিকা সম্পর্কে সাধারণ মানুষের বিভিন্ন ভুল ধারণা রয়েছে। আমার বাস্তব অভিজ্ঞতা থেকে দেখেছি সাধারণ মানুষের ধারণা শরীরের যেকোনো জায়গায় ব্যথা হলেই সেটা সায়াটিকার জন্য এটা ঠিক নয়। আসুন আমরা জেনে নিই তাহলে সায়াটিকা ও তার চিকিৎসা সম্পর্কে।

সায়াটিকা কী?

আমাদের শরীরে সায়াটিকা নামের একটি নার্ভ বা স্নায়ু রয়েছে, যার অবস্থান আমাদের মেরুদ-ের লাম্বার স্পাইনের শেষ দিকের কশেরুকা বা ভাটিব্রারা এল ৩, ৪, ৫ এবং সেকরাল স্পাইনের এস ১ কশেরুকা বা ভাটিব্রারা থেকে ঊরুর পেছন দিক দিয়ে হাঁটুর নিচের মাংসপেশির মধ্য দিয়ে পায়ের আঙুল পর্যন্ত। যখন কোনো কারণে এ নার্ভ বা স্নায়ুর ওপর চাপ পড়ে, তখন এ নার্ভ বা স্নায়ুর ডিস্ট্রিবিউশন অনুযায়ী ব্যথা কোমর থেকে পায়ের দিকে ছড়িয়ে যায়, এটাকে মেডিক্যাল পরিভাষায় সায়াটিকা বলা হয়।

সায়াটিকার লক্ষণ

* কোমর ব্যথা।

* ব্যথা কোমর থেকে পায়ের দিকে ছড়িয়ে যায়।

* অনেক ক্ষেত্রে কোমরে ব্যথা থাকে না কিন্তু ঊরুর পেছন দিক থেকে শুরু করে হাঁটুর নিচের মাংসপেশির মধ্যে বেশি ব্যথা করে।

* বিশ্রামে থাকলে বা শুয়ে থাকলে ব্যথা কম থাকে; কিন্তু খানিকক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকলে কিংবা হাঁটলে ব্যথা বেড়ে যায়।

* এমনকি কিছুক্ষণ হাঁটলে আর হাঁটার ক্ষমতা থাকে না, কিছুটা বিশ্রাম নিলে আবার কিছুটা হাঁটতে পারে।

* আক্রান্ত পা ঝিনঝিন বা অবশ অবশ অনুভূত হয়।

* কখনো আক্রান্ত পায়ে জ্বালাপোড়া অনুভব করে।

রোগ নির্ণয়

রোগ নির্ণয়ের ক্ষেত্রে রোগীর ইতিহাস ও ক্লিনিক্যাল এক্সামিনেশনের পাশাপাশি লাম্বো-সেকরাল স্পাইনের এমআরআই (ম্যাগনেটিক রিজোনেন্স ইমেজিং) করার প্রয়োজন পড়ে।

চিকিৎসা

এর চিকিৎসা সম্পূর্ণ বিশ্রাম, পাশাপাশি সঠিক ফিজিওথেরাপি। এ ক্ষেত্রে অবশ্যই তা একজন বিশেষজ্ঞ ফিজিওথেরাপি চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে হতে হবে।

পরামর্শ

* সামনের দিকে ঝুঁকে ভারী কিছু ওঠাবেন না।

* শক্ত বিছানায় ঘুমাবেন।

* ভ্রমণ বা কাজ করার সময় কোমরে বেল্ট ব্যবহার করবেন।

* ফিজিওথেরাপি চিকিৎসকের নির্দেশিত ব্যায়াম করতে হবে।

লেখক : বাত, ব্যথা, পারালাইসিস ও ফিজিওথেরাপি বিশেষজ্ঞ

ঢাকা সিটি ফিজিওথেরাপি হাসপাতাল, ঢাকা

"