সিইসি বললেন

নির্বাচনকালীন সরকারের দায়িত্ব নিতে পারে ইসি

প্রকাশ : ১৭ জুলাই ২০১৭, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

জাতীয় নির্বাচনের সময় নির্বাচন কমিশনই যেহেতু প্রশাসনিক সব ক্ষমতার অধিকারী হয়, তাই প্রয়োজনে তারাই নির্বাচনকালীন সরকারের দায়িত্ব পালন করতে পারে বলে অভিমত দিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নুরুল হুদা। গতকাল রোববার একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের রোডম্যাপ প্রকাশ করার পর নির্বাচন কমিশনের কাছে ‘ইসি নিজেই নির্বাচনকালীন সরকারের দায়িত্ব পালন করতে পারে কি না’-এমন প্রশ্ন রাখা হলে প্রধান নির্বাচন কমিশনার হ্যাঁ সূচক জবাব দেন। কেন নির্বাচন কমিশন নিজেই সরকারের দায়িত্ব পালনে সক্ষম হতে পারে তার ব্যাখ্যায় তিনি বলেন, তফসিল ঘোষণার পর নির্বাচন কমিশন সব প্রশাসনিক ক্ষমতার কর্তৃত্ব পায়। তবে নির্বাচনকালীন সরকারের বিষয়টি রাজনৈতিক সিদ্ধান্তের বিষয় উল্লেখ করে সিইসি বলেন, তারা এটা নিয়ে ভাবছেন না।

নির্বাচনের সময় যে সরকারই থাকুক না কেন ইসির দায়িত্ব নিরপেক্ষভাবে গ্রহণযোগ্য নির্বাচন অনুষ্ঠান। সিইসি বলেন, ‘নির্বাচনের সময় যে সরকারই থাকুক না কেন, আমরা নিরপেক্ষভাবে দায়িত্ব পালনে সক্ষম।’ তবে নির্বাচনকালীন সরকার রাজনৈতিক সিদ্ধান্তের বিষয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচনের স্বার্থে ইসি সব কিছু করতে পারে। তফসিল ঘোষণার পর নির্বাচনী পরিবেশে সরকার কোনো ব্যাঘাত সৃষ্টি করলে সাংবিধানিকভাবে তা মোকাবিলার প্রক্রিয়াও আছে।

নির্বাচন কমিশনকে সাংবিধানিক বাধ্যবাধকতায় ২০১৮ সালের ৩০ অক্টোবর থেকে ২০১৯ সালের ২৮ জানুয়ারির মধ্যে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন করতে হবে। সে লক্ষ্যে সাতটি বিষয়কে অন্তর্ভুক্ত করে ১৫ পৃষ্ঠার রোডম্যাপ প্রকাশ করেছে ইসি।

"