করোনা আক্রান্ত ছাড়াল ৪০ হাজার, মৃৃৃত্যু বেড়ে ৫৫৯

প্রকাশ : ২৯ মে ২০২০, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

মহামারি করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে দেশে আরো ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে ৫৫৯ জনের মৃত্যু হলো। এছাড়া ভাইরাসটিতে নতুন করে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ২ হাজার ২৯ জন। এটি এক দিনে সর্বোচ্চ শনাক্তের রেকর্ড। ফলে আক্রান্তের সংখ্যা হয়েছে ৪০ হাজার ৩২১। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনাভাইরাস বিষয়ক নিয়মিত হেলথ বুলেটিনে এ তথ্য জানানো হয়। বুলেটিন পড়েন অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (মহাপরিচালকের দায়িত্বপ্রাপ্ত) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

তিনি নতুন একটিসহ ৪৯টি ল্যাবরেটরিতে নমুনা পরীক্ষার তথ্য তুলে ধরে জানান, করোনাভাইরাস শনাক্তে ৯ হাজার ২৬৭টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করা হয় আগের কিছু মিলিয়ে ৯ হাজার ৩১০টি নমুনা। এ নিয়ে দেশে নমুনা পরীক্ষা করা হলো ২ লাখ ৭৫ হাজার ৭৭৬টি। নতুন নমুনা পরীক্ষায় করোনার উপস্থিতি পাওয়া গেছে আরো ২ হাজার ২৯ জনের দেহে। এ নিয়ে দেশে আক্রান্ত হয়েছেন ৪০ হাজার ৩২১ জন। আক্রান্তদের মধ্যে মারা গেছেন আরো ১৫ জন। ফলে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৫৫৯ জনে। সুস্থ হয়েছেন আরো ৫০০ জন। এ নিয়ে সুস্থ হয়ে ওঠা রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ৮ হাজার ৪২৫ জনে।

গত বুধবারের বুলেটিনে জানানো হয়, করোনায় আক্রান্ত হয়ে ২২ জন মারা গেছেন। ৮ হাজার ১৫টি নমুনা পরীক্ষায় করোনার উপস্থিতি পাওয়া গেছে আরো ১ হাজার ৫৪১ জনের দেহে। সে হিসাবে আগের ২৪ ঘণ্টার তুলনায় গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু কমলেও হয়েছে সর্বোচ্চ সংখ্যক রোগী শনাক্ত। এর আগে সর্বোচ্চ শনাক্তের রেকর্ড আছে ১ হাজার ৯৭৫ জনের, যা জানানো হয় গত ২৫ মের বুলেটিনে। দেশে এক দিনে সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড আছে ২৮ জনের। এ তথ্য জানানো হয় গত ২২ মের বুলেটিনে।

বরাবরের মতোই ডা. নাসিমা করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে সবাইকে স্বাস্থ্য অধিদফতর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পরামর্শ-নির্দেশনা মেনে চলার অনুরোধ জানান বুলেটিনে। চীনের উহান শহর থেকে গত ডিসেম্বরে ছড়ানো করোনাভাইরাস এখন গোটা বিশ্বকে মৃত্যুপুরীতে পরিণত করেছে। এ ভাইরাসে বিশ্বজুড়ে এখন পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ৫৮ লাখ ছাড়িয়েছে। মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৩ লাখ ৫৭ হাজার। তবে ২৫ লাখের মতো রোগী এরই মধ্যে সুস্থ হয়েছেন। বাংলাদেশে করোনাভাইরাস প্রথম শনাক্ত হয় গত ৮ মার্চ।

 

"