করোনাভাইরাস : সমগ্র বাংলাদেশ ঝুঁকিপূর্ণ

এক দিনে মৃত্যু ও শনাক্তে রেকর্ড

১০ মৃত্যু আক্রান্ত ১৫০০

প্রকাশ : ১৭ এপ্রিল ২০২০, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

একদিনেই ১০ জনের মৃত্যুর মধ্য দিয়ে বাংলাদেশে নভেল করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৬০ জন। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় আরো ৩৪১ জনের মধ্যে এ ভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়ায় আক্রান্তের মোট সংখ্যা বেড়ে ১৫৭২ জন হয়েছে। বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত প্রথম রোগীর খোঁজ মেলে গত ৮ মার্চ; তার ১০ দিনের মাথায় ঘটে প্রথম মৃত্যু। এক দিনে এত বেশি নতুন রোগী আর মৃত্যু বাংলাদেশকে আর দেখতে হয়নি। গত এক দিনে নতুন করে আর কেউ সুস্থ হয়ে ওঠেননি। এ পর্যন্ত ৪৯ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন। এদিকে গতকাল রাতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, এ পর্যায়ে সমগ্র বাংলাদেশ ঝুঁকিপূর্ণ।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক নাসিমা সুলতানা নতুন ১০ জন মৃত্যুবরণকারীর বিষয়ে জানান, তাদের মধ্যে

৭০ থেকে ৮০ বছর বয়সের একজন, ৬১ থেকে ৭০ বছর বয়সের পাঁচজন, ৫১ থেকে ৬০ বছর বয়সের তিনজন এবং ২১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে একজন রয়েছেন। এর মধ্যে পুরুষ সাতজন এবং নারী তিনজন। তাদের মধ্যে ঢাকায় রয়েছেন ছয়জন এবং ঢাকার বাইরে চারজন।

অধ্যাপক নাসিমা সুলতানা জানান, নতুন করে ২ হাজার ১৩৫টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। এর মধ্যে নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ২ হাজার ১১৯টি। বুধবারের চেয়ে নমুনা সংগ্রহ ৪ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে আর নমুনা পরীক্ষা ১৬ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে।

বুলেটিনে জানানো হয়, আইসোলেশনে রাখা হয়েছে ৩৭ জনকে এবং আইসোলেশন থেকে ছাড় পেয়েছেন ৯ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন ৪ হাজার ৪৯৯ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে আছেন ৭১৫ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় মোট কোয়ারেন্টাইন আছেন ৫ হাজার ২১৪ জন।

সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) তথ্য বলছে, চার দিন ধরে টানা করোনা শনাক্ত বাড়ছে বাংলাদেশে। এ সময়ে পরীক্ষার সংখ্যাও আগের চেয়ে বেড়েছে। গতকাল বুধবার পর্যন্ত দেশে করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়া ব্যক্তির সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ২৩১ জন। এর মধ্যে গতকাল বৃহস্পতিবার সর্বোচ্চ ২১৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

বাংলাদেশে গত ৮ মার্চ দেশে প্রথমবারের মতো করোনাভাইরাস রোগী শনাক্ত হয়। ১৮ মার্চ দেশে করোনায় প্রথম মৃত্যু হয়। এখন পর্যন্ত দেশে ৬০ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে।

 

"