কয়েক দিন কষ্ট করলেই করোনাযুদ্ধে জয়

স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রকাশ : ১২ এপ্রিল ২০২০, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

দেশের করোনা পরিস্থিতিতে আগামী কয়েকদিন সবাই একটু কষ্ট করলেই করোনা যুদ্ধে জয় সম্ভব বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। গতকাল শনিবার স্বাস্থ্য অধিদফতেরর নিয়মিত করোনাবিষয়ক বুলেটিনে যুক্ত হয়ে তিনি এই আশাবাদ ব্যক্ত করেন। ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, লকডাউন ভালোভাবে কার্যকর হলে সংক্রমণের হার কমবে। ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি বাড়ানো হয়েছে। আশা করব, এই কয়েকটি দিন কষ্ট করে যেন সবাই বাড়িতে ?থাকে। কয়েকদিন একটু কষ্ট করলে এই করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধে আমরা জয়লাভ করতে পারব। আমাদের সেনাবাহিনী, পুলিশ অত্যন্ত কষ্ট করছে। আরো কষ্ট করতে হবে আগামী কয়েক দিন যাতে আমাদের লকডাউন কার্যকর হয়। এরই মধ্যে বেশ কিছু চিকিৎসক, নার্স, সেনাসদস্য, পুলিশ সদস্য এবং গণমাধ্যমকর্মী করোনা শনাক্ত হয়েছেন। তাদের সুস্থতা কামনা করি।করোনাভাইরাসের বিস্তার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, করোনাভাইরাস সব জায়গায় বিস্তার লাভ করেছে। এর মধ্যে নারায়ণগঞ্জ, মিরপুর ও বাসাবো অন্যতম। এছাড়া অন্যান্য জেলায়ও করোনা ছড়িয়ে পড়েছে। লক্ষ্য করেছি নারায়ণগঞ্জ থেকে বেশ কিছু লোক অন্য জেলায় চলে গিয়েছে। এই বিষয়টি উদ্বেগজনক। এটিকে আরো কঠিনভাবে দেখতে হবে। লক্ষ্য করেছি, লোকজন এখনো বাইরে ঘোরাঘুরি করছে। অলিগলিতে এবং সকালের বাজারে লোক সমাগম বেড়ে যাচ্ছে। তাতে সংক্রমণের হার আরো বেড়ে যাবে।

করোনায় শনাক্তদের চিকিৎসার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, নতুন করে তিনটি প্রতিষ্ঠানকে করোনা আক্রান্ত রোগীদের জন্য তৈরি করা হচ্ছে। বসুন্ধরা কনভেনশন সেন্টারে ২ হাজার বেডে উন্নীত করা হচ্ছে। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন এলাকায় ১ হাজার ৩০০ বেড এবং উত্তরা দিয়াবাড়ীর চারটি বহুতল ভবনকে ১ হাজার ২০০ বেডে উন্নীত করছি। এখানে সর্বমোট সাড়ে ৪ হাজার বেডের ব্যবস্থা থাকবে।

বেসরকারি হাসপাতাল প্রসঙ্গে তিনি বলেন, বর্তমান অবস্থার পরিপ্রেক্ষিতে সিদ্ধান্ত নিয়েছি যে আরো বেশ কয়েকটি হাসপাতাল করোনার জন্য প্রস্তুত করা প্রয়োজন। বেসরকারি হাসপাতালও এগিয়ে এসেছে। আমরা আনন্দিত তারাও এখন চিকিৎসা দিচ্ছে। তাদের বেশ কয়েকটি হাসপাতালও আমরা করোনা চিকিৎসার জন্য প্রস্তুত করব। এসব হাসপাতালগুলো এরই মধ্যে সুসজ্জিত রয়েছে।

 

"