সংক্রমণ আরো ২১ জেলায়

দেশে আক্রান্ত ৪০০ ছাড়াল মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২৭

প্রকাশ : ১১ এপ্রিল ২০২০, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

এক দিনে আরো ছয়জনের মৃত্যুর মধ্য দিয়ে বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২৭ জন। আর গতকাল শুক্রবার বেলা আড়াইটা পর্যন্ত সারা দেশে ১ হাজার ১৮৪ জনের নমুনা পরীক্ষা করে আরো ৯৪ জনের মধ্যে ভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে। তাতে আক্রান্তের মোট সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪২৪ জন। তবে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত রোগী শনাক্তের সংখ্যা আগের দিনের চেয়ে গতকাল শুক্রবার কমেছে। কিন্তু মৃত্যু বেড়ে দাঁড়িয়েছে ছয়জন। এ নিয়ে দেশে মোট মৃত্যু ২৭। আগের দিন আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ১১২। ওই দিন মৃত্যু হয় একজনের। গতকাল স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত অনলাইন বুলেটিনে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা এ তথ্য জানান। বুলেটিনে স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক (রোগ নিয়ন্ত্রণ) সানিয়া তাহমিনা জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় ১ হাজার ১৮৪টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। আইইডিসিআর পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা বলেন, মারা যাওয়া ছয়জনের মধ্যে পুরুষ পাঁচজন এবং নারী একজন। ৩০ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে দুজন, ৫০ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে দুজন, ৭০ থেকে ৮০ বছরের মধ্যে একজন এবং ৯০ বছর বয়সি ]একজন। তাদের মধ্যে তিনজন ঢাকার, দুজন নারায়ণগঞ্জের এবং একজন পটুয়াখালী জেলার।

শনাক্ত হওয়া ৯৪ জনের মধ্যে ৬৯ জন পুরুষ, আর ২৫ জন নারী। ১০ বছরের নিচে চারজন, ১১ থেকে ২০ বছরের মধ্যে ছয়জন, ২১ থেকে ৩০ বছরের ১২ জন, ৩১ থেকে ৪০ বছরের ২৯, ৪১ থেকে ৫০ বছর বয়সি ১৬ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের ১৪ জন এবং ষাটোর্ধ্ব ১৩ জন। নতুন শনাক্ত হওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে ৩৭ জনই ঢাকার বাসিন্দা। এর মধ্যে সর্বোচ্চ যাত্রাবাড়ীতে পাঁচজন। নারায়ণগঞ্জে ১৬। বাকিরা অন্যান্য জেলার।

দেশে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত (কোভিড-১৯) প্রথম রোগী শনাক্ত হয় গত ৮ মার্চ। ১৮ মার্চ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। আর এক মাসের মধ্যে রোগীর সংখ্যা ৪০০ ছাড়াল। এদিকে, ঢাকা ও ঢাকা জেলা ছাড়া আরো ২১ জেলায় করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঘটেছে। ঢাকায় সংক্রমণ বেশি। রাজধানী ও ঢাকা জেলার বিভিন্ন জায়গায় মোট ২০৯ জন আক্রান্ত হয়েছে। ঢাকার বাইরে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছে নারায়ণগঞ্জ জেলায়। এই জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা ৫৯ জন। স্বাস্থ্য অধিদফতর সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

৮ মার্চ থেকে ৯ এপ্রিল পর্যন্ত মোট ৩৩০ জন শনাক্ত বলে রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর) জানিয়েছে। তাদের তথ্যানুযায়ী, অন্যান্য জেলার তালিকায় আছে: গাজীপুর, জামালপুর, কিশোরগঞ্জ, মাদারীপুর, মানিকগঞ্জ, নরসিংদী, রাজবাড়ী, টাঙ্গাইল, শরীয়তপুর, শেরপুর, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, কুমিল্লা, মৌলভীবাজার, সিলেট, রংপুর, গাইবান্ধা, নীলফামারী, চুয়াডাঙ্গা ও ময়মনসিংহ।

ঢাকা শহরে মোট রোগী শনাক্ত হয়েছে ১৯৬ জন। শহরে মোট ৬১টি এলাকার মানুষ আক্রান্ত হয়েছে। ১০ জন বা তার বেশি আক্রান্ত হয়েছে ধানমন্ডি, ওয়ারি, বাসাবো, উত্তরা ও মিরপুর-১ এ। আলোচিত টোলারবাগে আক্রান্ত হয়েছে আটজন। নারায়ণগঞ্জের বাইরে মাদারীপুর, চট্টগ্রাম ও গাইবান্ধায় রোগী বেশি। ৯ মার্চ পর্যন্ত এই তিন জেলায় শনাক্ত করা রোগীর সংখ্যা যথাক্রমে ১১, ৯ ও আটজন। রোগ শনাক্তকরণ পরীক্ষার সঙ্গে যুক্ত একটি সূত্র বলছে, আরো দুটি জেলায় সংক্রমণ ধরা পড়েছে।

 

"