গ্রামীণফোনের শতকোটি টাকার চেক ফিরিয়ে দিল বিটিআরসি

প্রকাশ : ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

পাওনা পরিশোধের জন্য বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনকে (বিটিআরসি) ১০০ কোটি টাকার চেক দিতে গিয়েছিল গ্রামীণফোন। তবে চেক গ্রহণ না করে ফিরিয়ে দিয়েছে সংস্থাটি। গতকাল বুধবার বিকালে গ্রামীণফোন কর্তৃপক্ষ চেক নিয়ে বিটিআরসির কার্যালয়ে যায় বলে একটি সূত্রে জানা গেছে। গ্রামীণফোন বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনকে তাদের অডিটকৃত দাবির পরিপ্রেক্ষিতে প্রথম দফায় কত টাকা দেবে তার ভাগ্য নির্ধারণ হওয়ার কথা রয়েছে আজ বৃহস্পতিবার। তার একদিন আগেই পাওনা পরিশোধ করতে ১০০ কোটি টাকার চেক নিয়ে বিটিআরসিতে গেল গ্রামীণফোন। তবে সেই চেক বিটিআরসি গ্রহণ করেনি।

এদিকে আপিল বিভাগ গত বছরের ২৪ নভেম্বর আদেশ দিয়েছেন ২৩ ফেব্রুয়ারির মধ্যে ২ হাজার কোটি টাকা দিতে হবে। আর ২৬ জানুয়ারি গ্রামীণফোন আদেশের বিপরীতে রিভিউ আবেদন করে ৫৭৫ কোটি টাকা দেওয়ার প্রস্তাব করে।

এদিকে ২৩ ফেব্রুয়ারির মধ্যে যদি গ্রামীণফোন বিটিআরসিকে টাকা পরিশোধ না করে তাহলে বিটিআরসি আইনগত পদক্ষেপ নিতে পারবে বলে আপিল বিভাগের রায়ে উল্লেখ রয়েছে। সে অনুসারে প্রশাসক বসানোর প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে বিটিআরসি।

এই প্রেক্ষাপটে আজকের রিভিউ আবেদনের শুনানিকেই ধরা হচ্ছে অডিট বিষয়ে গ্রামীণফোনের ভাগ্য নির্ধারণের দিন।

আপিল বিভাগের রায়ের বিপরীতে গ্রামীণফোন যে আবেদন করেছে সেখানে ৫৭৫ কোটি টাকা এক বছরে সমান ১২টি কিস্তিতে পরিশোধ করার প্রস্তাব করেছে অপারেটরটি।

দুই পক্ষে আইনজীবীরা বলছেন, বৃহস্পতিবার আপিল বিভাগের পূর্ণ বেঞ্চে শুনানির অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা, যেখানে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মহমুদুল হোসাইনসহ আপিল বিভাগের বিজ্ঞ বিচারপতিরা উপস্থিত থেকে আগে দেওয়া তাদের রায়ের বিষয়ে গ্রামীণফোনের রিভিউ প্রস্তাব শুনবেন।

 

"