‘মিয়ানমারের বিরুদ্ধে রোহিঙ্গা হত্যার বিচার করতে সুপারিশ করব’

প্রকাশ : ২৪ জানুয়ারি ২০২০, ০০:০০

কূটনৈতিক প্রতিবেদক

মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের ওপর মানবাধিকার লঙ্ঘন বিষয়ে জাতিসংঘের ফ্যাক্ট ফাইন্ডিং মিশনের প্রতিবেদন বাস্তবায়নে সুপারিশ করবেন জাতিসংঘের মিয়ানমার বিষয়ক বিশেষ দূত অধ্যাপক ইয়াংহি লি। তিনি বলেন, মিয়ানমারের নিরাপত্তা কর্মীরা রোহিঙ্গাদের ওপর ধর্ষণ, নিপীড়ন, নির্যাতন এবং হত্যাকান্ড চালিয়েছে। এসব মানবাধিকার লংঘনের ঘটনায় এখনো মিয়ানমারে বিচার পাওয়ার পরিবেশ নেই। মিয়ানমারের আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইন মেনে চলা উচিত, এজন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে উদ্যোগী হতে হবে। গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকার একটি হোটেলে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, নিরাপত্তা পরিষদে ভেটো ক্ষমতাধর এই দুই দেশের শীর্ষ নেতৃত্বের উচিত কক্সবাজারে এসে রোহিঙ্গাদের অবস্থা দেখে যাওয়া, প্রকৃত অবস্থা অনুধাবন করা। নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য হিসেবে মানবাধিকারের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো তাদের দায়িত্বের মধ্যে পড়ে।

অধ্যাপক ইয়াংহি লি বলেন, আজকের দিনটি ঐতিহাসিক। জাতিসংঘের ন্যায়বিচার আদালতে (আইসিজে) রোহিঙ্গা গণহত্যার বিষয়ে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গাম্বিয়ার করা অভিযোগের বিষয়ে বিচার করার আদেশ দিয়েছেন। আমি আমার চূড়ান্ত প্রতিবেদনে সব সত্য তথ্য-উপাত্ত উপস্থাপন করেছি। আমি কোনো পক্ষপাতিত্ব করিনি। আমার প্রতিবেদনে সুপারিশ করেছি সিয়েরালিওন, রুয়ান্ডা এবং বসনিয়া হার্জেগোভিনায় যেভাবে গণহত্যার বিচার হয়েছে, মিয়ানমারের ক্ষেত্রেও তা হওয়া উচিত।

তিনি আরো বলেন, মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর সদস্যরা এবং দেশটির নিরাপত্তা কর্মীরা রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর ওপর ধর্ষণ, নিপীড়ন, নির্যাতন এবং হত্যাকান্ড চালিয়েছে। এসব মানবাধিকার লংঘনের ঘটনায় এখনো মিয়ানমারে বিচার পাওয়ার কোনো পরিবেশ নেই। মিয়ানমারের আন্তর্জাতিক মানবাধিকার আইন মেনে চলা উচিত, এজন্য আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে উদ্যোগী হতে হবে।

 

"