এবার বাঘিনিদের সোনালি সাফল্য

প্রকাশ : ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯, ০০:০০

ক্রীড়া প্রতিবেদক

শেষ ওভারে শ্রীলঙ্কার মেয়েদের প্রয়োজন মাত্র ৭ রান, অক্ষত তিনটি উইকেট। হিমালয়ের দেশে এভারেস্টসম চাপের মুহূর্তে সাহসী সিদ্ধান্ত নিলেন অধিনায়ক সালমা খাতুন। পিঠ চাপড়ে বল তুলে দিলেন জাহানারা আলমের হাতে। টাইগ্রেস পেসারের প্রথম তিন বলে ২ রান তুলতে পারল লঙ্কানরা। চতুর্থ বলেই জাহানারা এনে দিলেন উইকেট। অন্তিম বলে প্রয়োজন ৩ রান। এবার রানআউট করে নিজে আনন্দে ভাসলেন, দেশকে আনন্দের জোয়ারে ভাসালেন নিগার সুলতানা। রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে বাংলাদেশ জয় পেল ২ রানে, দক্ষিণ এশিয়ান (এসএ) গেমসে চ্যাম্পিয়ন হয়ে গলায় জড়ালো সোনালি পদক।

নেপালের পোখারার রঙ্গশালা স্টেডিয়ামে কাল টস জিতে হাতে বল তুলে নিয়েছিল শ্রীলঙ্কা। টুর্নামেন্টের অন্যান্য ম্যাচে রাজত্ব করলেও এদিন ব্যর্থ ছিলেন ব্যাটসম্যানরা। মাত্র ৪২ রানেই ৬ উইকেট হারানোর পর বাঘিনিদের অর্ধশতক পেরোনো নিয়েই শঙ্কায় পড়েছিল সবাই। তবে এরপর দলের হাল ধরেন নিগার সুলতানা ও ফাহিমা খাতুন। দুজনের ৩০ রানের জুটিতে বিপর্যয় সামাল দেয় বাংলাদেশ। ফাহিমা ১৫ করে আউট হলেও লড়াই চালিয়ে যান নিগার। শেষ পর্যন্ত তিনি অপরাজিত থাকেন ২৯ রানে। এ ছাড়া সানজিদা ১৫ ও মুর্শিদা ১৪ রান করেন। নির্ধারিত ২০ ওভারে বাংলাদেশের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৮ উইকেট হারিয়ে মাত্র ৯১। লঙ্কানদের পক্ষে থিমাশিনী একাই নেন ৪ উইকেট।

মামুলি টার্গেট তাড়া করতে নেমে শুরুতেই উইকেট হারায় শ্রীলঙ্কা। সালমা খাতুনের বলে ফেরেন আনালি। ১৪ রানেই তাদের ৩ উইকেট তুলে নিয়ে চেপে ধরে বাঘিনিরা। এরপর উইকেট হারাতে থাকলেও রানের চাকা ঠিকই এগিয়ে নিচ্ছিল লঙ্কান মেয়েরা। পরে দুর্দান্ত বোলিংয়ের সঙ্গে চতুর ফিল্ডিংই বাঘিনিদের ম্যাচে রাখে। ক্ষিপ্র টাইগ্রেসে চার লঙ্কান নারী কাল রান-আউটে কাটা পড়েন। মাত্র ৯ রান খরচায় দুই উইকেট নেন নাহিদা আক্তার।

 

 

"