ছাত্রলীগকে টাকা দেওয়ার অভিযোগ ‘মিথ্যা গল্প’

জাবি উপাচার্য

প্রকাশ : ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০০:০০

জাবি প্রতিনিধি

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) উন্নয়ন প্রকল্প থেকে ‘শাখা ছাত্রলীগকে ১ কোটি ৬০ লাখ টাকা দেওয়া হয়’ কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদকের এমন অভিযোগকে ‘মিথ্যা গল্প’ আখ্যা দিয়েছেন উপাচার্য অধ্যাপক ফারজানা ইসলাম। তিনি বলেছেন, ‘ছাত্রলীগ মিথ্যা গল্প ছুড়েছে। আমি তাদের চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিলাম।’ গতকাল শনিবার নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে উপাচার্য ‘টাকা প্রদানের’ অভিযোগ অস্বীকার করে এসব কথা বলেন তিনি।

সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রী বরাবর লেখা এক চিঠিতে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের কাছে ‘চাঁদা দাবির’ অভিযোগের ব্যাখ্যা দেন। সেখানে তিনি লেখেন, ‘উপাচার্য ম্যামের

স্বামী ও ছেলে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগকে ব্যবহার করে কাজের সমঝোতা করে মোটা অঙ্কের কমিশন বাণিজ্য করেছেন। যার পরিপ্রেক্ষিতে ঈদুল আজহার পূর্বে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগকে ১ কোটি ৬০ লাখ টাকা দেওয়া হয়।’

গোলাম রাব্বানীর এমন অভিযোগের বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে উপাচার্য সাংবাদিকদের বলেন, ‘এ বিষয়ে আমি তদন্ত করতে বলবÑ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনকে, মাননীয় আচার্যকে। আমি যাব তাদের কাছে, বলব। এতে আমার কোনো সমস্যা নেই।’

ভিসি দাবি করেন, বিভিন্ন সময় শোভন-রাব্বানী এই বিশ্ববিদ্যালয়ের কাছে নানা দাবি-আবদার করেছে। তাদের সেসব অনৈতিক দাবি আমরা পূরণ করিনি। তাই হতাশ হয়েই তারা আমাদের বিরুদ্ধে এসব মিথ্যা গল্প প্রচার করছে।

প্রকল্পের কাজের সঙ্গে স্বামী ও ছেলের সংশ্লিষ্টতার অভিযোগের বিষয়ে উপাচার্য বলেন, ‘আমার ছেলে ও স্বামী কখনই তাদের ফোন করেনি। বরং তারাই ফোন করে দেখা করতে এসেছিল। তারা টাকার জন্য বিভিন্ন সময় প্রতিনিধি পাঠিয়ে আমাদের কর্মকর্তাদের বিরক্ত করেছে। এখন এসব কথা বলে তারা আমার পরিবারের নিরাপত্তাকেও হুমকির মুখে ফেলে দিয়েছে’।

এদিকে জাবি উপাচার্য শাখা ছাত্রলীগকে ‘টাকা দিয়েছেন’ গোলাম রাব্বানীর এমন বক্তব্যকে মিথ্যা আখ্যা দিয়ে পৃথক বিবৃতি দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও শাখা ছাত্রলীগ।

 

"