সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২৫৮৭২ রোগী

ডেঙ্গু : কলেজছাত্রীসহ আরো দুজনের মৃত্যু

প্রকাশ : ০৯ আগস্ট ২০১৯, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

ডেঙ্গু জ্বরের জীবাণুবাহী এডিস মশার আক্রমণ বাড়ছেই। আর ডেঙ্গু রোগীর চাপ সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে ঢাকার হাসপাতালগুলো, অনেকেই জ্বর নিয়ে গ্রামে ফিরে হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছেন। আবার অনেকে ঢাকা থেকে ফিরে আক্রান্ত হচ্ছেন ডেঙ্গুতে। এরই মধ্যে মশবাহিত এই রোগে আক্রান্ত হয়ে ২৯ জনের মৃত্যুর মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করেছে স্বাস্থ্য অধিদফতর। গতকাল ফরিদপুরে এক কলে ছাত্রী ও টাঙ্গাইলে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। এদিকে চলতি বছরের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত রেকর্ড ৩৪ হাজার ৬৬৬ ডেঙ্গু আক্রান্ত হওয়ার তথ্য সরকারি খাতায় নথিভুক্ত হয়েছে। আর ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়িতে ফিরে গেছেন ২৫ হাজার ৮৭২ জন। এদিকে মুষলধারে বৃষ্টিতে ডেঙ্গুর প্রকোপ কম যাবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অদিদফতরের এক কর্মকর্তা। তিনি জানান, ডেঙ্গু মশার লার্ভা স্বচ্ছ পানিতে জন্মে। মুষলধারে বৃষ্টি হলে লার্ভা ধুয়ে মুছে শেষ হয়ে যাবে; কমে যবে ডেঙ্গুর প্রকোপ।

স্বাস্থ্য অধিদফতরর তথ্য অনুযায়ী, বৃহস্পতিবার সারা দেশে মোট ৮ হাজার ৭৬৫ জন ডেঙ্গু রোগী বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। এর মধ্যে ঢাকার ৪০টি সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ৫ হাজার ১৪০ জন। আর দেশের বাকি এলাকায় বিভিন্ন হাসপাতালে মোট ৩ হাজার ৬২৫ জন এখন ভর্তি আছেন।

ঢাকা বিভাগের জেলাগুলোতেই সবচেয়ে বেশি ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে গেছেন। এসব জেলায় ভর্তি হয়েছেন মোট ২৮৩ জন নতুন রোগী।

এছাড়া চট্টগ্রাম বিভাগে ২২৭ জন, খুলনা বিভাগে ১৭৯ জন, বরিশাল বিভাগে ১৭৮ জন, রাজশাহী বিভাগে ১৩০ জন, ময়মনসিংহ বিভাগে ৭১ জন, রংপুর বিভাগে ৬৬ জন এবং সিলেট বিভাগে ৩৩ জন ডেঙ্গু নিয়ে হাসপাতালে গেছেন।

আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক ও জেলা প্রতিনিধিদের পাঠানো তথ্যে বিস্তারিত প্রতিবেদনÑ

ঢাকা : ঢামেক হাসপাতালে ৬৭৫ জন ডেঙ্গু নিয়ে ভর্তি আছেন। এ পর্যন্ত সেখানে ডেঙ্গুতে ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের তথ্য। ডেঙ্গুর চাপে ধারণ ক্ষমতার অতিরিক্ত রোগী ভর্তি হওয়ায় অধিকাংশের জায়গা হয়েছে হাসপাতালের ওয়ার্ড কিংবা ওয়ার্ডের বাইরের মেঝেতে।

হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম নাসির উদ্দিন বলেন, এখন পর্যন্ত হাসপাতালের ভেতরে চিকিৎসা দিচ্ছি আমরা। ৮০০’র মতো রোগীকে এখানে চিকিৎসা দেওয়া যাবে। আইসিইউ ও শিশু ওয়ার্ডে জায়গা হচ্ছে। এরপরও রোগীর চাপ বাড়লে আমরা শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসার ব্যবস্থা করব।

মধুখালী (ফরিদপুর) : মধুখালীতে সরকারি আইনউদ্দিন কলেজের স্নাতক শ্রেণির শেষবর্ষের এক শিক্ষার্থীর ডেঙ্গু জ¦রে মৃত্যু হয়েছে। তার নাম খালেদা আক্তার (২১)। তিনি উপজেলার মেগচামী ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের মেগচামী গ্রামের মাদরাসাশিক্ষক মো. সফিকুল ইসলাম খানের ছোট মেয়ে। তিন দিন আগে তিনি ডেঙ্গু জ¦রে আক্রান্ত হলে প্রথমে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং পরে ঢাকায় ধানমন্ডির একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন গতকাল সকালে তার মৃত্যু হয়। তার মৃত্যুর খবর গ্রামের বাড়ি এবং কলেজে ছাত্রছাত্রীদের মাঝে ছড়িয়ে পড়লে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

টাঙ্গাইল : মির্জাপুরে ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত হয়ে আরিফ খন্দকার কাজল (২০) নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। গত বুধবার রাতে কুমুদিনী হাসপাতালে এমএমএ ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন তার মৃত্যু হয়। তিনি উপজেলার উয়ার্শী ইউনিয়নের খৈলসিন্দুর গ্রামের মো. আলম খন্দকারের ছেলে। আরিফ মির্জাপুর সরকারি কলেজের স্নাতক শ্রেণির ছাত্র। জানা যায়, গত রোববার প্রচন্ড জ¦র অনুভব করলে দ্রুত আরিফকে মির্জাপুর কুমুদিনী হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। রক্ত পরীক্ষায় ডেঙ্গু রোগ শনাক্ত হলে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসাধীন রাখা হয়। ভর্তির তিন দিন পর বুধবার রাত ১০টার দিকে অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসাধীন তার মৃত্যু হয়।

এদিকে টাঙ্গাইলের বিভিন্ন হাসপাতালে নতুন করে ২১ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত ভর্তি হয়েছেন। এ পর্যন্ত চিকিৎসাধীন ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৮৮ জনে। জেলার বিভিন্ন হাসপাতালে ১৩৮ জন রোগী সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে ছুটি নিয়েছেন। ১৮ জনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

কচুয়া (চাঁদপুর) : চাঁদপুরের কচুয়ায় ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে শিশুসহ ১৫ জন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা নিয়েছেন। এখনো সাতজন চিকিৎসাধীন আছেন। এদের মধ্যে গুরুত্বর অবস্থায় গতকাল বোরহান নামে একজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

"