বৃষ্টিতে আজ ভেসে যেতে পারে ভারত-নিউজিল্যান্ড সেমিফাইনাল

প্রকাশ : ০৯ জুলাই ২০১৯, ০০:০০

আরিফ সোহেল

আজ বিশ্বকাপের মঞ্চের প্রথম ফাইনালিস্ট খুঁজে পাওয়া যাবে। তবে ম্যানচেস্টারে ভারত-নিউজিল্যান্ড দুই দলের জন্য কাঁটা হয়ে যেতে পারে বৃষ্টি। এই চিরশত্রু বৃষ্টি চিত্রনাট্যের পা-লিপিই এখন আয়োজকদের মাথাব্যথা। শুধু আজই নয়; পরশুও বিচ্ছিন্নভাবে প্রবল বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। নিয়ম অনুযায়ী ম্যাচে রিজার্ভ ডে থাকছে, প্রতিদিন নির্ধারিত সময় ছাড়াও আরো ১২০ মিনিট বেশি অতিরিক্ত সময় থাকছে ম্যাচ শেষ করার জন্য। তাতেও অবশ্য সমস্যার সমাধান হচ্ছে না।

সাতবার বিশ্বকাপ সেমিফাইনালে উঠে একবারও কাপ জেতা হয়নি নিউজিল্যান্ডের। একবার শুধু ফাইনালে পৌঁছানো গিয়েছিল। টেলররা আত্মবিশ্বাসী এবার। ওভালের প্রস্তুতি ম্যাচ, যেখানে উইলিয়ামসনরা হারিয়েছিলেন ভারতকে। ওই ম্যাচ তাদের স্বপ্ন দেখাচ্ছে। ওভালের ম্যাচে ভারতের টপঅর্ডারকে একা ভেঙেছিলেন বাঁহাতি ট্রেন্ট বোল্ট। ওল্ড ট্রাফোর্ডেই শুরুতে রোহিত শর্মাকে ফেরাতে বোল্টেই ভরসা রাখছে নিউজিল্যান্ড। বিশেষ করে তার যে বলটা অফ-স্টাম্প লাইনে পড়ে ভেতরে ঢোকে। কোচ গ্যারি স্টেড বলেছেন, ‘ভারত দারুণ ক্রিকেট খেলছে। প্ল্যানিং অনুযায়ী যদি ছেলেরা খেলতে পারে, ইতিবাচক ফলই হওয়ার কথা। আমাদের লক্ষ্য হবে, ওদের টপঅর্ডারকে ধাক্কা দেওয়া।’

নিউজিল্যান্ডের সেমিফাইনাল প্রতিপক্ষ শক্তিশালী ভারত। কোহলিদের হারিয়ে ফাইনালে উঠতে মরিয়া কেন উইলিয়ামসনরা। অন্যদিকে, দ্বিতীয়বার বিশ্বকাপ জয়ের লক্ষ্যে কার্যত অপরাজেয় দেখাচ্ছে ভারতকে। বিরাট বলেছেন, ‘আমাদের হিসাব-নিকাশ সহজ। জিতলে হলে সেরা খেলতেই হবে। নিউজিল্যান্ডের শুরুটাও কিন্তু দুর্দান্ত ছিল। সুতরাং আমরা সতর্ক থেকেই ম্যাচ শেষ করতে চাই।

বিশ্বকাপে দুর্দান্ত শুরু করেছিল নিউজিল্যান্ড। প্রথম ছয় ম্যাচে ১১ পয়েন্ট, অপরাজেয় ছিল কেন উইলিয়ামসনের টিম। কিন্তু শেষ দিকে একটু ধাক্কা খেয়েছেÑ এই যে। চার বছর আগে ফাইনালে হারের কষ্ট ভোলেননি অধিনায়ক ব্রেন্ডন ম্যাককালাম। বলেছেন, ‘স্বপ্ন সবাই দেখে। আমিও দেখেছিলাম। ভেবেছিলাম, ট্রফিটা জিতে মার্টিনকে উৎসর্গ করব। হলো না। হয়তো চার বছর পর হবে।’

ব্যাটিংয়ে টিমের ভরসা উইলিয়ামসন আর টেলর, সঙ্গে শুরুতে গাপটিল। পরে থাকবেন জিমি নিশ্যাম, কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমরা। বাঁহাতি মিচেল স্যান্টনার ছাড়াও টিমে আছেন রিস্ট স্পিনার ভারতীয় বংশোদ্ভূত ইস সোধি। তবে ভারতের বিরুদ্ধে দুই স্পিনার খেলানোর ঝুঁকি কোচ গ্যারি স্টেড নেবেন বলে মনে হয় না।

নিউজিল্যান্ডের চিন্তার মেঘ কাটছে না। রিজার্ভ ডে তেও যদি ম্যাচ বৃষ্টির জন্যে বাতিল হয় তা হলে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবলে এক নম্বরে থাকা ভারত সোজা চলে যাবে ফাইনালে। সেমিফাইনালে না খেলেই পয়েন্ট টেবিলে চার নম্বরে থাকা নিউজিল্যান্ডকে এবারের মতো বিদায় নিতে হবে বিশ্বকাপ থেকে। অতএব এখন দুই শিবিরেরই ২২ গজে নয়, নজর আকাশে।

 

"