প্রাণের হলুদ-সেমাই পুষ্টির তেলসহ ১৬ পণ্যের লাইসেন্স বাতিল

প্রকাশ | ১৭ জুন ২০১৯, ০০:০০

আদালত প্রতিবেদক

প্রাণের হলুদ-সেমাই, পুষ্টির তেলসহ ১৬টি পণ্যের লাইসেন্স বাতিল করেছে বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস অ্যান্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশনের (বিএসটিআই)। এসব পণ্য মানহীন ও ভেজালের উপস্থিতি পাওয়ার পর দ্বিতীয়বার পরীক্ষায়ও উত্তীর্ণ হতে পারেনি। গতকাল রোববার বিএসটিআইয়ের আইনজীবী আদালতকে এ তথ্য জানান। এ সময় ৭২ ঘণ্টার মধ্যে মানহীন ২২টি পণ্য বাজার থেকে সরানোর নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে পরীক্ষায় উত্তীর্ণ পণ্যগুলোর মান ধরে রাখতে বিএসটিআইকে সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণেরও নির্দেশ দেন।

১২ মে একটি রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে হাইকোর্ট এক আদেশে রুল দিয়ে বিএসটিআই ঘোষিত নিম্নমানের ৫২টি পণ্য অবিলম্বে বাজার থেকে সরাতে এবং জব্দ করতে বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান ও জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের মহাপরিচালককে নির্দেশ দেন। সেইসঙ্গে নির্দেশনা বাস্তবায়নের অগ্রগতি জানিয়ে আদালতে রিপোর্ট দেওয়ারও নির্দেশ দেওয়া হয়।

লাইসেন্স বাতি করা ১৬টি পণ্য হচ্ছে, প্রাণ হলুদের গুঁড়া, প্রাণ লাচ্ছা সেমাই, পুষ্টি সরিষার তেল, ড্যানিশ হলুদের গুঁড়া, ড্যানিশ কারি পাউডার, মোল্লা সল্ট, মিষ্টি মেলার লাচ্ছা সেমাই, ডানকান’স মিনারেল ওয়াটার, নূর স্পেশাল লবণ, দাদা সুপার লবণ, তিন তীর লবণ, স্টারশিপ লবণ, তাজ লবণ, জেদ্দা লাচ্ছা সেমাই, সান চিপস ও অমৃত লাচ্ছা সেমাই।

প্রসঙ্গত, গত মে মাসে মাহে রমজান উপলক্ষে বিএসটিআই বাজারে চলমান ৪০৬টি খাদ্যপণ্যের নমুনা পরীক্ষা করে। ওই পরীক্ষায় ৩১৩টি পণ্যের ফলাফল প্রকাশ করা হয়। সেখানে ৫২টি পণ্য ভেজাল বা মানহীন বলে প্রতিবেদন দেয় বিএসটিআই। এই ৫২টি পণ্য নতুন করে পরীক্ষার করা হলে ৩৬টি পণ্য পুনঃপরীক্ষায় উতরে যায়।

 

"