৪৮ বছরে বেড়েছে ৬৫০ গুণ

প্রকাশ | ১৩ জুন ২০১৯, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

আজ দেশের ৪৮তম জাতীয় বাজেট পেশ করবেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। স্বাধীনতার পর ৭৮৬ কোটি টাকার প্রথম বাজেট দিয়েছিলেন তাজউদ্দীন আহমদ। এবার সেই থেকে ৬৫০ গুণ বেড়ে বাজেট হচ্ছে প্রায় সোয়া ৫ লাখ কোটি টাকার। এই সময়ে সবচেয়ে বেশি ১২ বার বাজেট দিয়েছেন আবুল মাল আবদুল মুহিত ও সাইফুর রহমান। তাদের হাত ধরেই বেড়েছে বাজেটের আকার। দিনে দিনে বাড়ছে উন্নয়ন কর্মসূচি সঙ্গে বেড়েছে অর্থনৈতিক কর্মকা-। রাজনৈতিক অস্থিরতা, প্রাকৃতিক দুর্যোগসহ নানা সংকটেও থেমে যায়নি অগ্রযাত্রা। প্রতি বছরই বেড়েছে বাজেটের আকার।

১৯৭২ থেকে ২০১৮ পর্যন্ত অর্থ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বে থাকা মন্ত্রী বাজেট পেশ করলেও কখনো প্রধানমন্ত্রী, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা, সামরিক আইন প্রশাসক, এমনকি রাষ্ট্রপতি নিজেও বাজেট ঘোষণা করেছেন। সবচেয়ে বেশি ২০টি বাজেট হয়েছে আওয়ামী লীগ সরকারের সময়ে।

১৯৭২-৭৩ অর্থবছরে স্বাধীন দেশের প্রথম বাজেট পেশ করেন আওয়ামী লীগ সরকারের তৎকালীন অর্থমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমদ। এরপর আরো দুই বছর বাজেট প্রণয়ন করেন তিনি। তার সময়েই বাজেট ১ হাজার কোটি টাকা ছাড়ায়।

আওয়ামী লীগের হয়ে টানা ১০ বার বাজেট ঘোষণা করেন সাবেক অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। এছাড়া এরশাদের সময় ১৯৮২-৮৩ ও ৮৩-৮৪ অর্থবছরে দুটি বাজেট দেন তিনি। তার প্রথম বাজেটের আকার ছিল ৪ হাজার ৭৩৮ কোটি টাকা আর শেষটি ছিল ৪ লাখ ৬৪ হাজার কোটি টাকার।

মুহিতের সমানবার বাজেট দিয়েছেন বিএনপি সরকারের সাবেক অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমান। তার দেয়া শেষ বাজেট ছিল ২০০৬-০৭ অর্থবছরে। যার পরিমাণ ছিল ৬৯ হাজার ৭৪০ কোটি টাকা।

গত ৪৭ বছরে বাজেট পেশ করেছেন ১১ জন ব্যক্তি। ১২তম ব্যক্তি হিসেবে এবারই প্রথম বাজেট ঘোষণা করতে যাচ্ছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। যা আওয়ামী লীগ সরকারের ২১তম বাজেট। এর মাধ্যমে পাঁচ লাখ কোটি টাকার গন্ডি পেরুচ্ছে বাজেটের আকার।

বিশ্লেষকরা বলছেন, প্রতি বছর বাজেটের আকার বাড়লেও পুরো বাস্তবায়ন না হওয়ায় উন্নয়নে ঘাটতি থেকেই যাচ্ছে। তবে অবকাঠামো উন্নয়ন, মেগা প্রকল্প হাতে নেয়া এবং উন্নয়ন বাজেটে বিদেশ-নির্ভরতা কমা এসব বিষয়কে ইতিবাচক হিসেবে দেখছেন অর্থনীতিবিদরা।

 

 

"