প্রধানমন্ত্রী ফিরেছেন চোখ ভালো হয়েছে

প্রকাশ : ১২ মে ২০১৯, ০০:০০

নিজস্ব প্রদিবেদক

যুক্তরাজ্যে ১০ দিনের সরকারি সফর শেষ করে লন্ডন থেকে দেশে ফিরেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী ও তার সফরসঙ্গীদের বহনকারী বাংলাদেশ বিমানের একটি ভিভিআইপি ফ্লাইটটি গতকাল শনিবার সকাল ৯টা ৫৫ মিনিটে ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে। এদিকে দেশে ফিরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আগে ঝাপসা দেখতে পেতাম, এখন চোখ ভালো হয়েছে। ইনশাল্লাহ, এখন অনেক ভালো দেখতে পাচ্ছি। পাশাপাশি ঘূর্ণিঝড় ফণীতে বড় ধরনের ক্ষয়-ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা পাওয়ায় শুকরিয়া আদায় করেন তিনি। গণভবনে স্বাগত জানাতে উপস্থিত নেতাদের সামনে তিনি এই অভিব্যক্তি প্রকাশ করেন। এর আগে প্রধানমন্ত্রী গণভবনে পৌঁছালে উপস্থিত নেতারা তাকে স্বাগত জানান এবং চোখের চিকিৎসাসহ কুশলাদি জানতে চান। এ সময় প্রধানমন্ত্রী উপস্থিত নেতাদের বলেন, চোখ এখন ভালো হয়েছে। আগে ঝাপসা দেখতে পেতাম। ইনশাল্লাহ, এখন অনেক ভালো দেখতে পাচ্ছি। এছাড়াও ফণী দুর্গত এলাকার খবর জানতে চান প্রধানমন্ত্রী। এ ব্যাপারে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক ফণীর আঘাতে উপকূলীয় কোনো অঞ্চল বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সেগুলো অবহিত করেন।

এর আগে বিমানবন্দরে মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী এ কে এম মোজাম্মেল হক, কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আবদুর রাজ্জাক, আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক, অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল, পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন, বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম, প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ বিষয়ক উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-এলাহী চৌধুরী, বেসামরিক বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী, মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ সফিউল আলম, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান এবং ঊর্ধ্বতন বেসামরিক ও সামরিক কর্মকর্তারা প্রধানমন্ত্রীকে অভ্যর্থনা জানান।

এরও আগে লন্ডনের স্থানীয় সময় গত শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা ৩৫ মিনিটে ফ্লাইটটি ঢাকার উদ্দেশে হিথ্রো আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করে। যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের হাইকমিশনার সাঈদা মুনা তাসনিম বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে বিদায় জানান।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১০ দিনের সরকারি সফরে গত ১ মে লন্ডন যান। যুক্তরাজ্যে অবস্থানকালে গত বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী লন্ডনে তাজ হোটেলে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনগুলোর যুক্তরাজ্য শাখা আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় বক্তব্য দেন।

"