মিরসরাইয়ে হচ্ছে অর্থনৈতিক অঞ্চল

প্রকাশ : ১১ এপ্রিল ২০১৯, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

৯১৯ কোটি টাকা ব্যয়ে চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে হতে হচ্ছে ভারতীয় অর্থনৈতিক অঞ্চল। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের উদ্যোগে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ (বেজা)। প্রকল্পটি চলতি বছরের এপ্রিল থেকে ২০২১ সালের জুনের মধ্যে বাস্তবায়ন করা হবে। জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় সস্প্রতি এ সংক্রান্ত একটি প্রকল্প অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

‘মিরসরাইয়ে ভারতীয় অর্থনৈতিক অঞ্চল স্থাপন’ শীর্ষক ওই প্রকল্পে ব্যয় হবে ৯১৯ কোটি ৮৫ লাখ টাকা। এর মধ্যে বাংলাদেশ সরকার অর্থায়ন করবে ৫ কোটি ২৬ লাখ টাকা এবং ভারত ঋণ হিসেবে দেবে ৯১৪ কোটি ৫৯ লাখ টাকা। এ ঋণের সুদের হার ১ শতাংশ এবং ঋণের অর্থ ৫ বছরের গ্রেস পিরিয়ড ব্যতিরেকে ২০ বছরে পরিশোধ করতে হবে। এ বিষয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান গণমাধ্যমকে বলেন, ‘এটা স্পেশালি ডেডিকেটেড ফর ইন্ডিয়ান ইনভেস্টরস (প্রকল্পটি বিশেষত ভারতীয় বিনিয়োগকারীদের জন্য বরাদ্দ)। তাদেরই অনুরোধে এটা করা হয়েছে। তারা বলেছে, আমরা ইনভেস্ট করতে চাই, আপনারা জমি দেন। অন্যগুলো যেভাবে করেছি, একই মডেলে একই আদলে আমরা এটা করছি।’

প্রকল্প সূত্র জানায়, ২০১৭ সালের অক্টোবরে এক্সপোর্ট-ইমপোর্ট ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার সঙ্গে বাংলাদেশ সরকারের একটি চুক্তি হয়। ওই চুক্তির আওতায় ১০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারের সমপরিমাণ টাকা প্রকল্প ঋণ হিসেবে প্রস্তাব করা হয় বাংলাদেশকে। ২০১৮ সালের ১২ থেকে ১৩ ডিসেম্বর ভারতের নয়াদিল্লিতে ভারত ও বাংলাদেশ সরকারের প্রতিনিধিদের মধ্যে অনুষ্ঠিত দ্য ফোরটিনথ বিলিটেরাল লাইনস অব ক্রেডিট (এলওসি) রিভিউ মিটিংয়ে আলোচ্য প্রকল্পের জন্য ১০০ মিলিয়নের পরিবর্তে ১১৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার ঋণ পুনর্নির্ধারণ করা হয়।

এ প্রকল্পের আওতায় ১৫২ লাখ ঘনমিটার ভূমি উন্নয়ন, পানি সরবরাহ এবং নিষ্কাশনের জন্য ফেনী নদী থেকে ৯ কিলোমিটার পাইপলাইন নির্মাণ, ১০ কিলোমিটার সড়ক সংযোগ নির্মাণ, পাম্প স্টেশন নির্মাণ, পানি সংরক্ষণাগার, অভ্যন্তরীণ সংযোগ ও বহিঃনিষ্কাশন লাইন নির্মাণ, ৫ হাজার মিটার সীমা প্রাচীর নির্মাণ, ১ হাজার ৬৮০ বর্গমিটার প্রশাসনিক ভবন নির্মাণ, নিরাপত্তা শেড নির্মাণ ২০ হাজার ৬০৩ বর্গফুট এবং টেলিযোগাযোগ (অপটিকাল ফাইবার) স্থাপন করা হবে। ১১ জন আন্তর্জাতিক এবং ২৪ জন স্থানীয় পরামর্শক নিয়োগ করা হবে এ প্রকল্পে।

 

"