উখিয়ায় গুলিতে ইয়াবা কারবারি ২ ভাই নিহত

প্রকাশ : ১৬ মার্চ ২০১৯, ০০:০০

উখিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি

কক্সবাজারের উখিয়ায় দুই ইয়াবা কারবারি দলের সদস্যদের মধ্যে গোলাগুলিতে দুই ভাই নিহত হয়েছেন বলে দাবি করেছে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার শেষ রাতে উখিয়ার রূপপতিতে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ ইয়াবা, দুটি দেশীয় এলজি ও গুলি জব্দ করেছে। এদিকে অন্য রকম কথা বলেছেন নিহত এই দুই ব্যক্তির স্বজনরা। তাদের দাবি, সহোদর দুই ভাই মোস্তাক আহমদ ও মোক্তার আহমদকে এবং অপর এক যুবককে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর লোক পরিচয়ে তিন দিন আগে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়।

গতকাল শুক্রবার দুজনের লাশ পাওয়ায় এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। নিহত মোস্তাক আহমদ (৩৮) ও মোক্তার আহমদ (৪২) কক্সবাজারের উখিয়ার পালংখালী ইউনিয়নের ধামনখালি গ্রামের জেবর মল্লিকের ছেলে। উখিয়া থানা পুলিশের ওসি আবুল খায়ের জানান, উখিয়ার রূপপতিতে শুক্রবার ভোরে দুই ইয়াবা কারবারি গ্রুপের মধ্যে গোলাগুলি চলছেÑ এমন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ইয়াবা কারবারিরা পালিয়ে যায়। পরে ঘটনাস্থল তল্লাশি করে ৯ হাজার ৬ পিস ইয়াবা, দুটি দেশীয় তৈরি এলজি ও চার রাউন্ড গুলি ও দুজনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। দ্রুত হাসপাতালে নেওয়ার পথে আহতরা মারা যান। পরে স্থানীয়দের সহায়তায় নিহতদের শনাক্ত করা হয়। নিহতরা পুলিশের তালিকাভুক্ত ইয়াবা কারবারি দাবি করে ওসি আরো বলেন, লাশ দুটি ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। পুলিশের তদন্তসাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেবে।

অপরদিকে স্থানীয় একটি সূত্র জানিয়েছে, তিনদিন আগে সন্দেহভাজন দুই ইয়ারা চোরাচালানিসহ সাইফুল ইসলাম নামের এক যুবককে পালংখালীর ধামনখালী থেকে আটক করে সাদা পোশাকের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এ সময় তাদের কাছ থেকে ২০ ভরি স্বর্ণালংকার, ৬০ হাজার ইয়াবা ও নগদ টাকা জব্দ করা হয়। এরপর থেকে নানা দেনদরবার চলছিল। তবে এসব তথ্য অস্বীকার করেছেন ওসি আবুল খায়ের। পালংখালী ইউপির সদস্যরা বলেন, ১২ মার্চ দুপুর ১২টার দিকে পুলিশ ধামনখালীর বাসা থেকেই তাদের ধরে নিয়ে যায়। এ সময় এলাকার শত শত নারী-পুরুষ জড়ো হয়ে অভিযান প্রত্যক্ষ করেছে। শুক্রবার জানানো হলো দুই গ্রুপের গোলাগুলিতে তারা মারা গেছেন। এটা অস্বাভাবিক।

 

"