শিক্ষার্থীদের মন বুঝতে চান ডাকসুর ভিপি নুর

প্রকাশ : ১৫ মার্চ ২০১৯, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

দেশের দ্বিতীয় সংসদ খ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ-ডাকসুর নবনির্বাচিত ভিপি নুরুল হক নুর সাধারণ শিক্ষার্থীদের মনোভাব ও তারা কী চায় সেটি বুঝেই সিদ্ধান্ত নিতে চান। পাশাপাশি নির্বাচিত ভিপি হিসেবে নির্বাচনে অনিয়ম ও কারচুপির বিরুদ্ধে আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার বিষয়ে সোচ্চার থাকতে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে নিজের প্যানেলের প্রার্থীদের সঙ্গে নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলেন নুরুল হক নুর।

তিনি বলেন, নির্বাচনে কারচুপি ও অনিয়মের মধ্যে সাধারণ শিক্ষার্থীরা আমার পক্ষে কাজ করেছেন। তারা আমাকে ভোট দিয়েছেন। তাদের সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করছি। তারা কী চায় সেটা বোঝার চেষ্টা করছি। তারা যদি চায় ভিপি হিসেবে দায়িত্ব নেব এবং তাদের জন্য লড়াই সংগ্রাম করব তাহলে সেটাই হবে। যদি তারা না চায় তাহলে দায়িত্ব নেব না।

এ সময় রোকেয়া হল সংসদের পুনর্নির্বাচন এবং প্রভোস্টের অপসারণের দাবিতে গত বুধবার রাত থেকে হলের ফটকে অনশনে বসেছেন পাঁচ শিক্ষার্থী। অনশনরত শিক্ষার্থীর দাবির সঙ্গে একাত্মতা ঘোষণা নুর বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা যদি অনশন করে তার একটা গ্রহণ যোগ্যতা রয়েছে। গান্ধী একজন ছিলেন, বঙ্গবন্ধু একজন ছিলেন। অন্যায়ের বিরুদ্ধে তারা কিন্তু প্রথমে একাই লড়েছেন। শিক্ষার্থীরা অন্যায়ের বিরুদ্ধে যে প্রতিবাদ করছে আমি নৈতিকভাবে তার প্রতি সমর্থন দিয়েছি, এখনো দিচ্ছি।

ডাকসু নির্বাচনে রোকেয়া হলে ব্যাপক কারচুপি ও অনিয়ম হয়েছে দাবি করে নবনির্বাচিত ভিপি বলেন, সে হিসেবে জিনাত হুদা প্রভোস্টের দায়িত্বে থাকার নৈতিক অধিকার হারিয়েছেন। তার অবিলম্বে পদত্যাগ করা উচিত। আমার বোনদের সঙ্গে একমত হয়ে ভিসি মহোদয়কে বলেছি, রোকেয়া হলের প্রাধ্যক্ষ ম্যামের বিরুদ্ধে যেহেতু অনিয়মের অভিযোগ এসেছে, তাই উনাকে পদত্যাগ করতে হবে। যেমনিভাবে কুয়েত-মৈত্রী হলের প্রাধ্যক্ষের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ আসার পর তাকে সরে যেতে হয়েছিল।

 

"