শেষ হলো প্রথম অধিবেশন

২৬ কার্যদিবসে ৫ বিল পাস

প্রকাশ : ১২ মার্চ ২০১৯, ০০:০০

সংসদ প্রতিবেদক

একাদশ জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশনের মোট ২৬ কার্যদিবসে সব মিলিয়ে পাঁচটি বিল পাস হয়েছে। রাষ্ট্রপতি স্বাক্ষরিত বিলগুলো হচ্ছে ইট প্রস্তুত ও ভাটা স্থাপন (নিয়ন্ত্রণ) (সংশোধন) বিল-২০১৯; বাংলাদেশ ইপিজেড শ্রম বিল-২০১৯, পার্বত্য চট্টগ্রাম (ভূমি অধিগ্রহণ) (সংশোধন) বিল-২০১৯, আরপিও সংশোধন বিল-২০১৯ এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এভিয়েশন অ্যান্ড অ্যারোস্পেস বিশ্ববিদ্যালয় বিল-২০১৯।

এবার সর্বাধিক সংখ্যক সংসদ সদস্য রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আলোচনা করেছেন। ৫০ ঘণ্টার অধিক সময় রাষ্ট্রপতির

ভাষণের ওপর আলোচনা হয়েছে। গত ৩ মার্চ পর্যন্ত রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনীত ধন্যবাদ প্রস্তাবের ওপর মোট ১১৫ জন সংসদ সদস্য ৩৩ ঘণ্টা ৪৭ মিনিট আলোচনা করেছেন।

একাদশ সংসদ অধিবেশনে কার্যপ্রণালি বিধির ৭১ বিধিতে ৩২১টি নোটিশ পাওয়া যায়। এর মধ্যে ৩০টি নোটিশ গ্রহণ করা হয়েছে এবং ১৮টি নোটিশ নিয়ে সংসদে আলোচনা হয়েছে। এছাড়া ৭১ (ক) বিধিতে ২ মিনিট করে আলোচনার নোটিশ ছিল ১৫৫টি। এবারের অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রীর উত্তরদানের জন্য ১১৪টি প্রশ্ন পাওয়া যায় তার মধ্যে প্রধানমন্ত্রী ৪৬টি প্রশ্নের উত্তর দেন। এছাড়া অন্য মন্ত্রীদের উত্তরদানের জন্য ২ হাজার ৩২৫টি প্রশ্ন পাওয়া যায় এর মধ্যে ১ হাজার ৭৪৮টি প্রশ্নের উত্তর দেন মন্ত্রীরা।

নদভী : কওমি মাদ্রাসা ও হেফাজতে ইসলামের আমির আল্লামা আহমদ শফীকে নিয়ে ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেননের দেয়া বক্তব্যে আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী। তিনি বলেছেন, ‘কওমি মাদ্রাসার দাওরায়ে হাদিসকে মাস্টার্স সমমান মর্যাদা দিয়ে এই সংসদে আইন পাস হয়েছে। আইন পাস হওয়ার পর এ ধরনের মন্তব্য আমাদের একটু আহত করেছে। কারণ আমিও কওমি সন্তান।’

নদভী বলেন, ‘এই স্বীকৃতিতে মুসলিম বিশ্ব খুশি হয়েছে, মুসলিম বিশ্বের ওলামারা খুশি হয়েছেন। শুধু একটা দল খুশি হয়নি সেটা হলো জামায়াতে ইসলামী। কওমি স্বীকৃতি কওমি আকিদাতে জামায়াতে ইসলামের নেতারা খুশি হতে পারেনি।’

 

"