ইথিওপিয়ায় বিমান দুর্ঘটনায় ১৫৭ জনের প্রাণহানি

পৃথক ঘটনায় কলম্বিয়ায় ১৪ নিহত, নিউইয়র্কে আহত ৩০

প্রকাশ : ১১ মার্চ ২০১৯, ০০:০০

প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

ইথিওপিয়ার রাজধানী আদ্দিস আবাবায় দেশটির একটি সরকারি বিমান বিধ্বস্ত হয়ে ক্রুসহ ১৫৭ জন আরোহী নিহত হয়েছেন। এছাড়া কলম্বিয়ার মেটা প্রদেশে বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় নিহত হয়েছেন ১৪ জন। অন্যদিকে নিউইয়র্কের জন এফ কেনেডি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে টার্কিস এয়ারলাইন্সের একটি বিমান অবতরণের সময় প্রচণ্ড ঝাঁকুনিতে ৩০ যাত্রী আহত হয়েছেন। তিন বিমান দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন মোট ১৭১ জন, আহত হয়েছেন ৩০ জন।

ইথিওপিয়া : ইথিওপিয়ার রাজধানী আদ্দিস আবাবা থেকে উড্ডয়নের মাত্র ছয় মিনিটের মাথায় দেশটির সরকারি বিমান সংস্থা ইথিওপিয়ান এয়ারলাইন্সের একটি বিমান বিধ্বস্ত হয়ে ১৪৯ আরোহী ও আট ক্রুসহ মোট ১৫৭ জন মারা গেছেন। গতকাল রোববার সকালে আদ্দিস আবাবার বোল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বিমানটি কেনিয়ার রাজধানী নাইরোবির উদ্দেশে যাত্রা করেছিল। দেশটির সরকারি সম্প্রচার মাধ্যমকে বিমান সংস্থাটির মুখপাত্র বলছে, ‘ইথিওপিয়া এয়ারলাইন্সের বিধ্বস্ত বিমানটির ১৪৯ আরোহী ও আট ক্রুর সবাই মারা গেছেন। নিহতদের মধ্যে ৩৩ দেশের নাগরিক রয়েছেন।’ খবর রয়টার্সের।

দেশটির সরকারি ওই বিমানসংস্থার এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বোয়িং-৭৩৭ ম্যাক্স ৮ বিমানটি বোল বিমানবন্দর থেকে স্থানীয় সময় সকাল ৮টা ৩৮ মিনিটে উড্ডয়ন করে। ছয় মিনিট পর ৮টা ৪৪ মিনিটে বিমানটির সঙ্গে রাডারের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। আদ্দিস আবাবা থেকে ৬২ কিলোমিটার দক্ষিণ-পূর্ব দিকের বিশোফতু শহরের কাছে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছে। সংস্থাটি বলছে, বিশোফতু শহরের আশপাশে উদ্ধার ও তল্লাশি অভিযান শুরু হয়েছে।

কলম্বিয়া : কলম্বিয়ার মেটা প্রদেশে বিমান বিধ্বস্তের ঘটনায় ১৪ জন নিহত হয়েছেন। গত শনিবার সকাল ১০টা ৪০ মিনিটে এ ঘটনা ঘটে। দেশটির বেসামরিক বিমান চলাচল সংস্থা এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। খবর রয়টার্সের। দেশটির সিভিল অ্যারোনটিক্সের বিশেষ প্রশাসনিক ইউনিট জানিয়েছে, বিধ্বস্ত বিমানের কোনো আরোহীই বেঁচে নেই। গত শনিবার স্থানীয় সময় সকাল ১০টা ৪০ মিনিটে ডিসি-৩ বিমানটি থেকে কল আসার পর এর সঙ্গে সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় এবং পরে এটি বিধ্বস্ত হয়। বিমানটি দক্ষিণাঞ্চলীয় শহর সান হোসে দেল গুয়াভিয়ারে থেকে মধ্যাঞ্চলীয় ভিয়াভিসেন্সিওতে যাচ্ছিল।

নিউইয়র্ক :

নিউইয়র্কের জন এফ কেনেডি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের সময় টার্কিস এয়ারলাইন্সের একটি বিমানের ফ্লাইটে প্রচণ্ড ঝাঁকুনিতে ৩০ যাত্রী আহত হয়েছেন। এদের মধ্যে কমপক্ষে ১০ জনকে হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। গত শনিবার এই দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে স্থানীয় কর্মকর্তারা নিশ্চিত করেছেন।

বিমানটি তুরস্কের ইস্তাম্বুল শহর থেকে নিউইয়র্কের উদ্দেশে যাত্রা করেছিল। অবতরণের আগে প্রচণ্ড ঝাঁকুনিতে এর বেশ কয়েকজন যাত্রী আহত হলেও অবশেষে বিমানটি নিরাপদেই অবতরণ করতে পেরেছে। বোয়িং ৭৭৭ বিমানটিতে ৩২৬ জন যাত্রী এবং ২১ জন ক্রু ছিলেন।

 

"