লাকসামে স্থানীয় সরকারমন্ত্রী

দুর্নীতিমুক্ত দেশ গড়াই সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ

প্রকাশ : ১৩ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০

লাকসাম (কুমিল্লা) প্রতিনিধি
ama ami

স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেছেন, দারিদ্র্যবিমোচন বা অবকাঠামোগত উন্নয়নের চেয়েও সরকারের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হচ্ছে সুশাসন প্রতিষ্ঠা ও দুর্নীতিমুক্ত দেশ গড়া। এ লক্ষ্য অর্জনে এরই মধ্যে কাজ শুরু করেছে সরকার। গতকাল শনিবার সকালে লাকসাম উপজেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয় প্রাঙ্গণে এলাকার সর্বস্তরের জনসাধারণ, দলীয় নেতাকর্মী, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠনের নেতাদের সঙ্গে শুভেচ্ছা ও মতবিনিময় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। পাশাপাশি দেশে সন্ত্রাস, নৈরাজ্য, জঙ্গিবাদ নির্মূলে দলমতের ঊর্ধ্বে থেকে সরকারকে সহযোগিতার আহ্বান জানান মন্ত্রী। এ সময় বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ, প্রশাসনিক কর্মকর্তা-কর্মচারী, রাজনৈতিক নেতা, সাংবাদিক, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, স্বাস্থ্যসেবা প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তারা এলজিআরডিমন্ত্রীকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান।

এলজিআরডিমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। এগিয়ে যাচ্ছে মানুষের জীবনযাত্রার মান। এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকলে ২০৪১ সালের আগেই বাংলাদেশ উন্নত বিশ্বে পরিণত হবে।

মন্ত্রী বলেন, গ্রামগঞ্জে উন্নত জীবনের সুযোগ-সুবিধা পৌঁছানোই হচ্ছে এ সরকারের প্রতিশ্রুতি। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নপূরণের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকারের লক্ষ্য হলো উন্নত বাংলাদেশ গড়া। এ লক্ষ্য অর্জনে এরই মধ্যে কাজ শুরু করেছে তার সরকার। তবে এ ক্ষেত্রে কোনোভাবেই দুর্নীতি ও ক্ষমতার অপব্যবহার করা যাবে না।

এদিন বিকেলে এলজিআরডিমন্ত্রী উপজেলার বাকই ইউনিয়নের কৈত্রা গ্রামে নির্বাচনী সহিংসতায় নিহত আওয়ামী লীগের নেতা মো. ফয়েজ উল্লাহর বাড়ি যান। সেখানে তার কবর জিয়ারত করেন এবং শোকাহত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে সান্ত¦Íনা দেন। মন্ত্রী ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রশাসনের প্রতি নির্দেশ দেন।

মতবিনিময় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা দক্ষিণ জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (পুলিশ সুপার পদে পদোন্নতিপ্রাপ্ত) মো. আবদুল্লাহ আল মামুন, কুমিল্লা জেলা নির্বাহী প্রকৌশলী সোহরাব আলী, লাকসাম উপজেলা চেয়ারম্যান ইউনুছ ভূঁইয়া, লাকসাম উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ কে এম সাইফুল আলম, কুমিল্লা জেলা পরিষদের সদস্য আবু তাহের, তানজিনা আক্তার, লাকসাম পৌরসভা মেয়র অধ্যাপক আবুল খায়ের, লাকসাম উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. ইসমাইল হোসেন, পল্লীবিদ্যুতায়ন বোর্ড কুমিল্লা জোনের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মো. আতাউর রহমান চৌধুরী, লাকসাম উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম হিরা, লাকসাম পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি তাবারক উল্লাহ কায়েস, সাধারণ সম্পাদক মহব্বত আলী, ছাত্রলীগের সাবেক নেতা ইঞ্জিনিয়ার জাকির হোসেন সাগর, নাছির উদ্দিন, মনোহরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, লাকসাম উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রাশিদা বেগম, লাকসাম থানার ওসি মনোজ কুমার দে প্রমুখ।

"