খুলনা-২ প্রতি কেন্দ্রে ইভিএম পরিচালনায় থাকছে ৩ সেনা

প্রকাশ : ০৯ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০

খুলনা ব্যুরো

খুলনা-২ আসনে ইভিএম (ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন) পরিচালনায় প্রতিটি ভোট কেন্দ্রে তিনজন করে প্রশিক্ষিত সেনাসদস্য দায়িত্ব পালন করবেন। দাফতরিক পত্র না পেলেও মৌখিকভাবে এমনি তথ্য জানতে পেরেছেন বলে জানালেন খুলনার রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন। তিনি বলেন, ‘সংশয়ের কিছু নেই। ইভিএমে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে নির্বাচন সম্পন্নের সব প্রস্তুতি এগিয়ে নেয়া হচ্ছে।’ শনিবার জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এসব কথা বলেন তিনি। এদিকে খুলনা-২ আসনে ইভিএমের বিষয়ে জনগণকে সচেতন করতে শনিবার থেকে খুলনা শহরে শুরু হয়েছে ইভিএম প্রদর্শনী।

মতবিনিময়কালে সাংবাদিকদের প্রশ্নোত্তরে রিটার্নিং অফিসার বলেন, খুলনায় সুষ্ঠু নির্বাচনের পরিবেশ বিরাজ করছে। ভোটারদের মধ্যে উৎসবমুখরতা বিরাজমান। খুলনার কোথাও এখনো পর্যন্ত অপ্রীতিকর কোনো ঘটনা ঘটেনি। অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের স্বার্থে সবার সহযোগিতা কামনা করে তিনি আরো বলেন, ইভিএম সম্পর্কে প্রতিটি এলাকায় সচেতনতামূলক প্রচারণা চলছে। বাকি সময়ের মধ্যে আরো প্রচারণা চালানো হবে।

জেলা প্রশাসক জানান, প্রাথমিকভাবে ২২ নম্বর ওয়ার্ডের চারটি কেন্দ্র খুলনা জেলা স্কুল, পাইওনিয়ার মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়, আবু হানিফ কেরাতুল কোরআন মাদরাসা ও ফাতেমা ম্যধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত ইভিএম প্রদর্শন করা হবে। ১২ ডিসেম্বর থেকে পর্যায়ক্রমে ১৫৭টি কেন্দ্রে ইভিএম প্রদশর্নীর আয়োজন করা হবে যা নির্বাচনের আগের দিন পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে। ইভিএম নিয়ে সমাজের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের মধ্যে যেসব প্রশ্ন আছে তা এই প্রদর্শনীর মাধ্যমে দূর হবে বলে তিনি অভিমত ব্যক্ত করেন।

"