আখাউড়ায় আইনমন্ত্রী

আবার প্রমাণ হলো বিএনপি জামায়াতের পকেটে

প্রকাশ : ০৮ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০

আখাউড়া (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, তাদের (বিএনপির) আসল রূপ বেরিয়ে গেছে। তারা (বিএনপি) সব সময় জামায়াতের পকেটে ছিল। এখনো আছে, সেটা আবারও প্রমাণ হলো। গতকাল শুক্রবার দুপুরে আখাউড়া উপজেলার মনিয়ন্দ ইউনিয়নের মাঝিগাছা গ্রামের এক দোয়া মাহফিলে তিনি এসব কথা বলেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক অধ্যক্ষ মো. জয়নাল আবেদীন, পৌর মেয়র মো. তাকজিল খলিফা কাজল, যুগ্ম আহ্বায়ক মো. সেলিম ভূঁইয়া, আবুল কাশেম ভূঁইয়া, মন্ত্রীর সহকারী একান্ত সচিব রাশেদুল কায়সার ভূঁইয়া জীবন, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মঞ্জুয়ারা বেগম, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান মুরাদ হোসেন ভূঁইয়া, মোগড়া ইউপি চেয়ারম্যান মনির হোসেন, সাবেক মনিয়ন্দ ইউপি চেয়ারম্যান মাহবুবুল আলম চৌধুরী দীপক, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহাবুদ্দিন বেগ সাপলু, সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন নয়ন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. শরীফুল ইসলাম প্রমুখ।

মন্ত্রী বলেন, উনারা (বিএনপির সাহেবরা) যখন সরকারে ছিল, তখন তারা সরকারি টাকা চুরি করতে অভ্যস্ত ছিল, ওই অশোক থেকে মনে করেন সব কিছুতে পাহারা দিতে হবে। আর আওয়ামী লীগের আমলেই সুষ্ঠু নির্বাচন হয়। আপনারা যতই পাহারার দেন সুষ্ঠু নির্বাচন হবেই ইনশাআল্লাহ। মন্ত্রী ভোটাদের আহ্বান জানিয়ে বলেন, ভোটারদের আগামী ৩০ ডিসেম্বরে ভোটকেন্দ্রে গিয়ে ভোট দিতে হবে। মন্ত্রী আরো বলেন, ‘আমি আপনাদের কাছে এখন ভোট চাইব না। আমি দেশের আইনমন্ত্রী। আমি যদি ভাঙি নির্বাচন কমিশনারসহ সারা পৃথিবী বলে উঠবে বাংলাদেশের আইনমন্ত্রী আইন ভাঙে, আইন মানে না। ১১ ডিসেম্বরের পরে নির্বাচনী প্রচারণা চালাব।’

"