মাথাপিছু আয় বেড়েছে ১২ হাজার ৩৬৭ টাকা

প্রকাশ : ০৭ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

গত এক বছরে দেশের মানুষের মাথাপিছু আয় বেড়েছে ১৪৯ মার্কিন ডলার বা ১২ হাজার ৩৬৭ টাকা (প্রতি ডলার সমান ৮৩ টাকা হিসেবে)। অন্যদিকে, বাংলাদেশের মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপি) প্রবৃদ্ধির হার দাঁড়িয়েছে ৭ দশমিক ৮৬ শতাংশে। গতকাল মঙ্গলবার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম। মন্ত্রণালয় ও বিভাগগুলোর ২০১৭-১৮ অর্থবছরের কার্যাবলি সম্পর্কিত প্রতিবেদন প্রকাশ উপলক্ষে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ২০১৭-১৮ অর্থবছরে আগের অর্থবছরের তুলনায় মাথাপিছু জাতীয় আয়, আমদানি-রফতানি, সরাসরি বৈদেশিক বিনিয়োগর পরিমাণ এবং রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রা ও পরিমাণ বেড়েছে। ২০১৭-১৮ অর্থবছরে জিডিপি বৃদ্ধির হার ৭ দশমিক ৮৬ শতাংশ এবং জাতীয় আয় গত অর্থবছরের ১ হাজার ৬০২ থেকে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৭৫১ মার্কিন ডলারে।

তিনি জানান, আগের অর্থবছরের তুলনায় দেশের মোট পণ্য রফতানির পরিমাণ ৭ দশমিক ৭৫ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪১ দশমিক ১ মিলিয়ন ডলার। ২০১৬-১৭ অর্থবছরে রাজস্ব আদায় হয়েছে ২ লাখ ৩০ হাজার ৯৬৫ কোটি টাকা। যা আগের বছরের চেয়ে ১৪ দশমিক ৭৮ শতাংশ বেশি। অন্যদিকে দেশে রেমিট্যান্স প্রবাহের পরিমাণ বেড়েছে ১৭ দশমিক ৩১ মার্কিন ডলার। ২০১৬-১৭ অর্থবছরে রেমিট্যান্স এসেছে ১৪ দশমিক ৯৮ বিলিয়ন ডলার।

সচিব বলেন, ২০১৭-১৮ অর্থবছরে দেশে সরাসরি বিদেশি বিনিয়োগ এসেছে (ইপিজেড ও নন ইপিজেড) ২ দশমিক ৫৮১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। যা আগের বছরের চেয়ে ৫ দশমিক ১৮ শতাংশ বেশি। এ সময় বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগের সমাপ্তিযোগ্য মোট ৩০০ প্রকল্পের মধ্যে ২৭৩টি প্রকল্প শেষ হয়েছে।

প্রতিবেদনে জানানো হয়, ২০১৭ সালে দেশে দারিদ্র্যের হার ছিল ২৩ দশমিক ১ শতাংশ। ২০১৮ সালে তা কমে দাঁড়িয়েছে ২১ দশমিক ৮ শতাংশ। চরম দারিদ্র্যের হার গত বছরের ১২ দশমিক ১ শতাংশ থেকে কমে দাঁড়িয়েছে ১১ দশমিক ৩ শতাংশ। ২০১৭-১৮ অর্থবছরে বিদেশে গেছে ৮ লাখ ৬৭ হাজার ১২৮ জন বাংলাদেশি। এর মধ্যে ১ লাখ ১৩ হাজার ৯০৭ জন নারী।

 

"