এ কেমন বরবরতা!

বাউফলে প্রতিবন্ধীর শরীরে গরম পানি

প্রকাশ : ২০ অক্টোবর ২০১৮, ০০:০০

বাউফল (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি

পটুয়াখালীর বাউফলে জারিব আকন নামে এক মানসিক প্রতিবন্ধীকে গরম পানি ঢেলে গা ঝলসে দেওয়া হয়েছে। ওই প্রতিবন্ধী পথ ভুলে পৌরসভার খালেক আকন নামে এক ব্যক্তির বাড়ির ছাদে উঠে পড়ার কারণে তার গায়ে গরম পানি ঢেলে ঝলসে দেওয়া হয়। শুধু তা-ই নয়, এরপর সিঁড়ি থেকে ধাক্কা দিয়ে নিচে ফেলে দেওয়া হয়। জারিব বর্তমানে বাউফল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

জারিব বাউফল উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়নের নাজিরপুর গ্রামে নূর মোহাম্মাদ আকনের ছেলে। গতকাল শুক্রবার বাউফল হাসপাতালে গিয়ে দেখা গেছে, জারিবের ডান হাত, বুক ও গায়ের নিম্নাংশে গরম পানির ক্ষতের সৃষ্টি হয়েছে। থুতনির নিচের অংশ ফেটে গেছে। সিঁড়িতে চোট পেয়ে পড়ে গেছে একটি দাঁত। এ অবস্থায় অসহ্য যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছিল জারিব। বাউফল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক ডা. আকতারুজ্জামান জানান, জারিবের উন্নত চিকিৎসা প্রয়োজন। জারিবের ছোটবোন নিলুফা ইয়াসমিন জানায়, গত মঙ্গলবার দুপুরের দিকে জারিব পথ ভুলে বাউফল পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা খালেক আকনের বাড়ির ছাদে উঠে যায়। এতে খালেক আকনের দুই ছেলে সোহাগ ও সবুজ ক্ষিপ্ত হয়ে জারিবের গায়ে গরম পানি ঢেলে দেয়। এরপর তাকে সিঁড়িতে এনে ধাক্কা দিয়ে নিচে ফেলে দেয়। পরে শাকিল নামে এক ব্যক্তি জারিবকে অসুস্থ অবস্থায় দেখতে পেয়ে বাউফল হাসপাতালে এনে ভর্তি করেন।

খালেক আকনের সঙ্গে কথা তিনি জানান, তিনি কিংবা তার পরিবারের কেউই এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত নন। জারিবের স্বজনরা এ বিষয়ে খালেক আকনের কাছে জানতে চাইলে তাদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করে তাদের ঘর থেকে বের করে দেওয়া হয় এবং মামলা করলে দেখে নেওয়ারও হুমকি দেওয়া হয়।

বাউফল থানার ওসি খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, বিষয়টি আপনাদের (সাংবাদিকদের) মাধ্যমে জানলাম, এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে আইগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

"