মতবিরোধ থাকলেও নির্বাচন করা কঠিন হবে না : সিইসি

প্রকাশ : ১৭ অক্টোবর ২০১৮, ০০:০০

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা বলেছেন, নির্বাচন কমিশনারদের মধ্যে মতবিরোধ থাকলেও জাতীয় নির্বাচন পরিচালনার কাজ কঠিন হবে না। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে নির্বাচন কমিশন ভবনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ মন্তব্য করেন। একাদশ জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু করতে ৫ দফা প্রস্তাব তৈরি করেছিলেন নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার। গত সোমবার নির্বাচন কমিশনের সভায় তাকে ওই প্রস্তাবের আলোচনা করতে দেওয়া হয়নি। কমিশনের বিরুদ্ধে মাহবুব তালুকদার বাক-স্বাধীনতা খর্ব করার অভিযোগ তুলে সভা বর্জন করেন। সিইসির কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি। সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার আগে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিয়ে ইসির মাঠপর্যায়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করে নির্বাচন কমিশন।

এ বিষয়ে সিইসি বলেন, ভোটার তালিকা, ভোটকেন্দ্রসহ তিন চারটি বিষয়ে তারা কর্মকর্তাদের কাছে জানতে চেয়েছেন। কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সার্বিকভাবে পরিস্থিতি সন্তোষজনক। কোথায়, কীভাবে নির্বাচনসামগ্রী নেওয়া হবে, সে বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। মাঠপর্যায়ের কর্মকর্তারা বলেছেন, স্থানীয় পুলিশ ও প্রশাসনের সহযোগিতা তারা পাচ্ছেন।

সংসদ বহাল রেখে নির্বাচন হলে কোনো বিশেষ নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে কি না জানতে চাইলে সিইসি বলেন, তফসিল ঘোষণার পর জানতে পারব সরকারের অবস্থান কি থাকবে, এমপিদের অবস্থান কি থাকবে। এটা নিয়ে মাঠ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে কোনো আলোচনা হয়নি। আমরা দেখি সরকার এমপিদের কীভাবে রাখে। আচরণবিধির কিছু কিছু পরিবর্তন হবে। কিছুদিন পর আইন সংস্কার কমিটির মিটিংয়ে এসব নিয়ে সিদ্ধান্ত হবে।

এমপিদের নিয়ন্ত্রণ বিষয়ে আচরণবিধি পরিবর্তন হচ্ছে কি না এমন প্রশ্নের উত্তর এড়িয়ে যান সিইসি। নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদারের বাকস্বাধীনতা খর্ব করার অভিযোগ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, গতকাল এটা হয়ে গেছে। আজকে আর আমি এটা আনব না। ওটা নিয়ে আপনাদের পত্রপত্রিকা, টেলিভিশনে রিপোর্ট ছাপা হয়েছে, প্রচার হয়েছে। আই ডোন্ট লাইক টু গো ব্যাক। তাহলে কমিশনার মাহবুব তালুকদারের কথাগুলো সত্য কি না?- এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, আমাকে আর ইনসিস্ট করবেন না। আমি আর কথা বলব না।

"