কুমিল্লায় প্রবাসীর স্ত্রীকে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন

প্রকাশ : ১৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০

কুমিল্লা প্রতিনিধি
ama ami

কুমিল্লার লালমাই উপজেলার মনোহরপুরে কাতার প্রবাসী আবদুল মালেকের স্ত্রী শিরিন আক্তারের ওপর মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন চালানো হয়েছে। গ্রাম্য সালিশে মাতবর দুলা মিয়া চেয়ারম্যানের ছেলে সোলেমান মেহেদীর নির্দেশে মাতবর শ্রেণির লোকজন ওই প্রবাসীর স্ত্রীর ওপর এ নির্যাতন চালায়। পরে নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে (ফেসবুক) ছড়িয়ে পড়লে এলাকাসহ সর্বত্র আন্দোলনের ঝড় উঠে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, কুমিল্লা জেলার লালমাই উপজেলার বাগমারা উত্তর ইউনিয়নের মনোহরপুর গ্রামের মান্নান মাস্টারের ছেলে জাকারিয়া ও তার স্ত্রী তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে প্রবাসীর স্ত্রী শিরিন আক্তারকে মারধর করে। মারধরের ঘটনায় শিরিন আক্তার আইনি ব্যবস্থা নিতে চাইলেও গ্রাম্য মাতবররা তাকে বাধা দেয়। সম্প্রতি সামাজিক সালিশে বিষয়টি ভিন্ন খ্যাতে প্রবাহিত করার জন্য প্রবাসী আবদুল মালেকের স্ত্রী শিরিন আক্তারের বিরুদ্ধে মান্নান মাস্টারের বখাটে ছেলে কিবরিয়ার পরকীয়া অভিযোগ আনে। এ অভিযোগে চেয়ারম্যানের ছেলে সোলেমান মেহেদীর নির্দেশে মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন চালায় সেলিমসহ ওই গ্রামের মাতবররা। গত মঙ্গলবার রাতে প্রবাসীর স্ত্রীর ওপর গ্রাম্য মাতবরদের চালানো নির্যাতনের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে (ফেসবুকে) ছড়িয়ে পড়লে সর্বত্র আন্দোলনের ঝড় উঠে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে লালমাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কে এম ইয়াসির আরাফাত বলেন, দোষীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সদর দক্ষিণ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জকে জানানো হয়েছে। সদর দক্ষিণ মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মামুন অর রশিদ জানান এ ঘটনায় থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

"