চট্টগ্রামে রাইফার মৃত্যু

ম্যাক্সের দুই ডাক্তার চাকরিচ্যুত

প্রকাশ : ০৮ জুলাই ২০১৮, ০০:০০

চট্টগ্রাম ব্যুরো

চট্টগ্রামে সাংবাদিক রুবেল খানের শিশুকন্যা রাইফা খানের মৃত্যুর ঘটনার তদন্তে চিকিৎসায় অবহেলার প্রমাণ মেলায় দুই ডাক্তারকে চাকরিচ্যুত করেছে চট্টগ্রামের বেসরকারি ম্যাক্স হাসপাতাল। রাইফার মৃত্যুর ঘটনায় গঠিত সিভিল সার্জনের তদন্ত কমিটি গত বৃহস্পতিবার প্রতিবেদন জমা দেয়। এতে রাইফার মৃত্যুর জন্য ডা. বিধান রায় চৌধুরী, ডা. দেবাশীষ সেনগুপ্ত ও ডা. শুভ্র দেবের অবহেলাকে দায়ী করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশও আসে ওই প্রতিবেদনে। এরপর ডা. দেবাশীষ ও ডা. শুভ্রকে ম্যাক্স হাসপাতাল থেকে চাকরিচ্যুত করে কর্তৃপক্ষ। ডা. বিধানকে আর ডাকা হবে না বলেও জানিয়েছেন ম্যাক্স হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। গত শুক্রবার রাতে বিষয়টি গণমাধ্যমকে জানানো হয়।

গতকাল শনিবার ম্যাক্স হাসপাতালের পরিচালক ডা. লিয়াকত আলী খান বলেন, সেদিন শিশুটির খিঁচুনি শুরু হওয়ার পর যখন দাঁত ভেঙে যায় তখন তার বাবা তাকে নিয়ে ছোটাছুটি করছিল। এ সময় তাকে আইসিইউতে নেওয়া উচিত ছিল। তা না করে ডা. দেবাশীষ ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্টে অদক্ষতার পরিচয় দিয়েছেন। ওই রকম পরিস্থিতিতে সিনিয়র প্রফেসরের সঙ্গে আলোচনা করা উচিত ছিল। ডা. দেবাশীষ ও ডা. শুভ্রকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে। ডা. বিধান আমাদের নিয়োগপ্রাপ্ত চিকিৎসক নন। রোগীর স্বজনরা না ডাকলে আমরা তাকে কল দিব না। গত ২৮ জুন বিকেলে দৈনিক সমকালের চট্টগ্রাম ব্যুরোর স্টাফ রিপোর্টার রুবেল খানের আড়াই বছর বয়সী মেয়ে রাইফা গলায় ব্যথা নিয়ে ম্যাক্স হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিল। ২৯ জুন রাতে তার মৃত্যু হলে সাংবাদিকরা কর্তব্যরত চিকিৎসক ও নার্সদের অবহেলাকে দায়ী করে বিক্ষোভ করেন। এরপর রাইফার মৃত্যুর কারণ অনুসন্ধানে জেলা সিভিল সার্জনের নেতৃত্বে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। তদন্ত কমিটিতে শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ ডা. প্রণব কুমার চৌধুরী এবং সিইউজের যুগ্ম সম্পাদক সবুর শুভ সদস্য হিসেবে ছিলেন।

"