রাশিয়ার উড়ন্ত সূচনা

রাশিয়া ৫ : ০ সৌদি আরব

প্রকাশ : ১৫ জুন ২০১৮, ০০:০০

ক্রীড়া ডেস্ক

আরো কুড়িটি বিশ্বকাপ দেখেছে ফুটবল দুনিয়া। কিন্তু এশিয়ার কোনো দলের উদ্বোধনী ম্যাচ খেলার সৌভাগ্য হয়নি। কাল সুবর্ণ সেই সুযোগটাই পেল সৌদি আরব। বিশ্বমঞ্চের ইতিহাসে প্রথম এশিয়ান প্রতিনিধি হিসেবে টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচ খেলল মরুভূমির দেশটি।

কিন্তু উপলক্ষটা রাঙাতে পারেনি সৌদি আরব। স্বাগতিক রাশিয়ার কাছে স্রেফ খড়কুটোর মতোই উড়ে গেছেন অ্যারাবিয়ানরা। কাল মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে সৌদি আরবকে ৫-০ গোলে বিধ্বস্ত করেছে রাশান সৈন্যরা। সবশেষ ২০০৬ বিশ্বকাপেও বিধ্বস্ত হয়ে মিশন শুরু করেছিল সৌদি। হামবুর্গে সেদিন ইউক্রেনের কাছে ৪-০ গোলে চূর্ণ হয়েছিল এশিয়ান দলটি।

কাল যেখানে জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রাশিয়া বিশ্বকে স্বাগত জানিয়েছিল সেই মঞ্চেই উড়ন্ত সূচনা হলো রাশানদের। শুরুর বর্ণিল আয়োজনই নয়, সৌদি আরবের বিপক্ষে দাপুটে পারফরম্যান্সেও রাশিয়া মুগ্ধ করেছে সবাইকে।

এই ম্যাচ দিয়েই বিশ্বকাপ ফুটবল প্রবেশ করেছে নতুন এক যুগে। প্রযুক্তির ছোঁয়ায় শুরু হয় এই ফুটবল মহাযজ্ঞ। রেফারিদের তুলতে হয়নি অফসাইডের কোনো পতাকা। কারণ এই ম্যাচেই প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপে অভিষেক হয়েছে ভিডিও অ্যাসিসটেন্ট রেফারিং (ভিএআর) পদ্ধতির।

অবশ্য বিশ্বকাপের ইতিহাস রাশিয়ার অনুকূলেই ছিল। কারণ স্বাগতিক দল কখনো আসরে নিজেদের প্রথম ম্যাচে হারে না। খর্বশক্তির দল সৌদি আরবের বিপক্ষে রাশানদের জয়টা তাই এক প্রকার অনুমিতই ছিল। হলোও তাই। ম্যাচটাকে বড্ড একতরফা বানিয়ে দারুণ জয় তুলে নেয় রাশিয়া।

অসম দ্বৈরথের শুরু থেকেই মুহুর্মুহু আক্রমণে অ্যারাবিয়ানদের রক্ষণভাগের নাভিশ্বাস তুলে ফেলে স্বাগতিক শিবির। রাশানদের একচ্ছত্র আধিপত্য থাকল ম্যাচের শেষ অবধি। তাতেই বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে সৌদি আরব। এশিয়ার প্রতিনিধি দলটি। হজম করে একে একে পাঁচটি গোল। সৌদি বিপদসীমার ওপর দিয়ে বয়ে যাওয়া ঝড়ের শুরু ১২ মিনিটে, শেষ হয় দ্বিতীয়ার্ধের যোগ করা সময়ে।

এই সময়ে জোড়া গোল রাশানদের বড় জয়ের নায়কবনে যান চেরিশেভ। তার গোলগুলোর আগে পরে সৌদি জালে বল জড়িয়েছেন গাজিনস্কি, ডিজুবা ও গলভিন। প্রথমজনের পা থেকেই ২১তম বিশ্বকাপ দেখেছে প্রথম গোল। দারুণ এই জয়ের ফলে ‘এ’ গ্রুপ থেকে নকআউট পর্বে ওঠার দৌড়ে এগিয়ে গেল স্বাগতিক রাশিয়া।

আগামী বুধবার রাত ৯টায় উরুগুয়ের বিপক্ষে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচ খেলবে সৌদি আরব। তবে রাশানদের পরে ম্যাচ ১৯ জুন, মোহাম্মদ সালাহর মিসরের সঙ্গে। ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত ১২টায়।

"