জাহাঙ্গীর ইফতারে আলোচনায় হাসান

প্রকাশ : ১৩ জুন ২০১৮, ০০:০০

গাজীপুর প্রতিনিধি

আসন্ন গাজীপুর সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মেয়র প্রার্থী অ্যাডভোকেট মো. জাহাঙ্গীর আলম ইফতার ও দোয়া মাহফিলে অংশ নিয়ে ভোট চেয়ে বেড়াচ্ছেন। আর বিএনপির মেয়রপ্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকার নিজ বাড়িতে দলীয় নেতাকর্মী ও সাংবাদিকদের নিয়ে নির্বাচনী আলোচনায় ব্যস্ত ছিলেন গতকাল মঙ্গলবার।

জাহাঙ্গীর এদিন ৩৬ নম্বর ওয়ার্ডে ও ছয়দানার নিজ বাড়িতে ইফতার-দোয়া মাহফিলে অংশ নেন। ইফতারপূর্ব আলোচনায় তিনি দোয়া ও সমর্থন চেয়েছেন। এছাড়া সকাল থেকে নিজ বাড়িতে ৪২৫টি কেন্দ্র কমিটির নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। আওয়ামী লীগ প্রার্থীর মিডিয়া সেল জানায়, প্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম মহানগরীর ৩৪ নম্বর ওয়ার্ড ছয়দানা নিজ বাড়ি, ৩৬ নম্বর ওয়ার্ড কামারজুরি উচ্চবিদ্যালয় মাঠ ও গাছাবাজার দলীয় কার্যালয়ে ইফতার ও দোয়া মাহফিলে আলোচনা করেন। এসব অনুষ্ঠানে প্রতিদিনের মতোই ইফতার মাহফিলে সর্বস্তরের মানুষ অংশ নিচ্ছেন।

অনুষ্ঠানে জাহাঙ্গীর আলম সবাইকে ঈদুল ফিতরের শুভেচ্ছা জানান। তিনি বলেন, ঈদের ঠিক পূর্ব মুহূর্তে বৃষ্টির কারণে জলাবদ্ধতায় চরম জনভোগান্তিতে পরেছেন নগরবাসী। সামান্য বৃষ্টি হলেই টঙ্গী, গাছা, বোর্ডবাজার, চৌরাস্তা, জয়দেবপুর,কোনাবাড়ীসহ ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কে জলাবদ্ধতা হচ্ছে। অতীতের অপরিকল্পিত ড্রেনেজ ব্যবস্থা এবং জলাধার সংরক্ষণে ব্যর্থতা এর জন্য দায়ী। তিনি নির্বাচিত হলে পরিকল্পিত ড্রেনেজ ব্যবস্থা তৈরির পাশাপাশি জলাধার সংরক্ষণে উদ্যোগী হবেন। তিনি সবাইকে আগামী ২৬ জুন নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে তাকে জয়যুক্ত করার আহ্বান জানান।

মহানগর আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যক্ষ মহিউদ্দিন মহির সভাপতিত্বে বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. মোজাফ্ফর হোসেন, মো. শহীদ উল্লাহ, আকরাম হোসেন সরকার মো. মনিরুজ্জামান মনির প্রমুখ বক্তব্য দেন। উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা মো. সিরাজুল ইসলাম, আবদুর রশিদ মিয়া, কাজী ইলিয়াস আহমেদ, মো. জহিরুল হক হারুন, আবদুস সাত্তার নায়েব প্রমুখ।

এদিকে বিএনপির মেয়রপ্রার্থী দুপুরে নির্বাচনী এলাকার বাইরে বাঘের বাজার এলাকায় নিজের সাবাহ গার্ডেনের প্রতিবেশী দরিদ্রদের মধ্যে জাকাতের কাপড় বিতরণ করেন। বিকালে বাড়িতে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে ইফতার করেন।

বিএনপির প্রার্থীর মিডিয়া সেল জানায়, টঙ্গীর নিজ বাড়িতে সাংবাদিকদের হাসান সরকার বলেছেন, মেয়র মান্নানকে বরখাস্ত করে আওয়ামী লীগ নিজেদের লোক দিয়ে উন্নয়নের নামে লুটপাট করেছে। বর্তমানে নগরবাসীর যে দুর্ভোগ, এর জন্য মেয়র মান্নান নয় বরং আওয়ামী লীগই শতভাগ দায়ী।

তিনি ভোটারদের উদ্দেশ্যে বলেন, আমি নির্বাচিত হলে আওয়ামী লীগের লুটপাটের খায়েশ আর পূরণ হবে না। আমার দীর্ঘদিনের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে সন্ত্রাস, চাঁদাবাজ, মাদক ও দুর্নীতিমুক্ত একটি নগরী উপহার দিতে চাই।

"