চারদিকে লিটন মরিয়া বুলবুল

প্রকাশ : ১০ জুন ২০১৮, ০০:০০

এস এইচ এম তরিকুল, রাজশাহী

রাজশাহী সিটি করপোরেশনের (রাসিক) নির্বাচন ঘিরে এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটনের পক্ষে আগে থেকেই দৃশ্যমান প্রচারণায় মাঠে সরব আছে আওয়ামী লীগ। ব্যানার ফেস্টুন, পোস্টার ও লিফলেট বিলি থেকে শুরু করে যানবাহনে সাঁটানো হয়েছে নৌকা সংবলিত প্রচারপত্র। যেদিকেই চোখ যায় সেদিকেই লিটনের প্রচারপত্র। আর পুনরায় জয় পেতে মরিয়া বর্তমান মেয়র মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল কৌশলে মাঠ গোছাচ্ছেন।

এদিকে, নির্বাচন কমিশনের ঘোষিত আগামী ৩০ জুলাই রাসিকের ভোটের দিন নির্ধারণের পর পুরোদমে মাঠে নেমেছেন লিটন। তার পক্ষে শুধু দলীয় নেতাকর্মীরাই নয়, বিভিন্ন সংগঠন মাঠে নেমেছে। লিটনের পক্ষে বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোট চাইছেন সংখ্যালঘুরাও। যে কারণে বদলে গেছে রাজশাহীর চিত্র। মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটনের ঈদ শুভেচ্ছা আর ভোটের প্রার্থনা সংবলিত পোস্টারে ছেয়ে গেছে মহানগরী। নগরীর দেয়ালে, আইল্যান্ডে, মার্কেট-বিপণিবিতান, রিকশা, অটোরিকশা ও যানবাহনে সাঁটানো হয়েছে পোস্টার, স্টিকার। পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও চলছে লিটনের পক্ষে ভোট প্রার্থনা। নগরীকে আবারো বদলে দেওয়ার আহ্বান জানানো হয়েছে এসব প্রচারণাপত্রে। প্রতিদিন একাধিক ইফতার পার্টিতে যোগ দিচ্ছেন লিটন ও মেয়র বুলবুলও।

নগরীতে প্রচারপত্র না থাকার বিষয়ে লিটনকে দায়ী করে মেয়র বুলবুল বিভিন্ন অনুষ্ঠানে বলছেন, সুন্দর সাজানো পরিপাটি শহরকে অপরিচ্ছন্ন করতে আমি চাইনি। তিনি বলেন, আমার নির্বাচনী প্রচারণার জন্য নয়, রমজানের পবিত্রতা রক্ষায় বিলবোর্ড লাগিয়েছিলাম। কিন্তু সেটা খুলে লিটনের ব্যানার লাগানো হয়েছে। পুলিশ প্রশাসনকে বলেও লাভ হয়নি।

এদিকে আওয়ামী লীগের প্রার্থী এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটনকে মেয়র নির্বাচিত করতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানিয়ে প্রচারণায় নেমেছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম এমপি, বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক রাজশাহী সদর আসনের এমপি ফজলে হোসেন বাদশা, মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড রাজশাহীর চেয়ারম্যান প্রফেসর মো. আবুল কালাম আজাদ, শিক্ষাবিদ শফিকুর রহমান বাদশাসহ অনেক সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতারা।

তারা বলছেন, গতবার রাজশাহী নগরবাসী ভুল করলেও এবার আর ভুল করবে না। রাজশাহীর উন্নয়নে লিটনের কোনো বিকল্প নেই। লিটনকে নির্বাচিত করতে প্রচেষ্টার সবটুকু দিয়ে দিতে হবে, সবাইকে শক্তভাবে দাঁড়াতে হবে।

রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার বলেন, গত নির্বাচনে পরাজয়ের পর থেকেই মহানগর আওয়ামী লীগ লিটনের পক্ষে মাঠে সোচ্চার রয়েছে। লিটন ছাড়া রাজশাহীর উন্নয়নে কোনো বিকল্প নেই তাই নগরবাসী আওয়াজ তুলে নৌকার পক্ষে অবস্থান নিয়েছেন।

"