গাজীপুর সিটি নির্বাচন

টাকা দিলে বিজয়ী নইলে পরাজয় শেষে পুলিশে

প্রকাশ : ০৯ জুন ২০১৮, ০০:০০

গাজীপুর প্রতিনিধি

তিনি নিজেকে পরিচয় দিতেন বড় প্রভাবশালী কেউকেটা হিসেবে। গাজীপুরে আসন্ন সিটি করপোরেশন (জিসিসি) নির্বাচন লক্ষ্য করে যেতেন প্রার্থীদের বাড়িতে। চাইতেন বড় অঙ্কের টাকা। কথা একটাই তার চাহিদা মিটালে কপালে জয় মিলবে, না হলে নির্ঘাত পরাজয়। বিধি বাম, বেশি দিন করতে পারেননি এই চালবাজি। ধরা পড়েছেন পুলিশের হাতে। এসব কথা গাজীপুরে গ্রেফতার হওয়া এক প্রতারক সম্পর্কে। তিনি এখন গাজীপুরের লাল দালানে।

জিসিসি নির্বাচনে বিজয়ী করিয়ে দেওয়ার প্রলোভন দেখিয়ে এবং পরাজিত করানোর ভয় ও হুমকি দিয়ে কাউন্সিলর পদপ্রার্থীদের কাছে থেকে চাঁদা দাবির অভিযোগে এক প্রতারককে আটক করেছে গাজীপুর গোয়েন্দা পুলিশ।

গতকাল শুক্রবার দুপুরে গাজীপুরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ তার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান। আটক ওই ব্যক্তির নাম আতিকুল ইসলাম হৃদয়। তিনি মুন্সীগঞ্জের লৌহজং থানার রানাদিয়া গ্রামের মৃত আব্দুল হকের ছেলে। বর্তমানে তিনি গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ইটাহাটার আমিনবাড়ি এলাকায় বসবাস করেন।

পুলিশ সুপার জানান, আতিকুল ইসলাম হৃদয় গত ৫ জুন গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ৫৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর পদপ্রার্থী মো. নজরুল ইসলামের বাড়িতে গিয়ে নিজেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাসিস্ট্যান্ট প্রফেসর ড. লিক্সন চৌধুরী বলে পরিচয় দেন। এ সময় তিনি নজরুল ইসলামকে গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে হারিয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে এবং পাস করানোর আশ্বাস দিয়ে তার কাছে সাড়ে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন। টাকা দিলে পাস করিয়ে দেবে এবং না দিলে ফেল করানোর হুমকি দেন। এমন অভিযোগের ভিত্তিতে গোয়েন্দা পুলিশ গত বৃহস্পতিবার রাতে অভিযান চালিয়ে টঙ্গী থেকে তাকে আটক করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, আতিকুল ইসলাম হৃদয় গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনের বিভিন্ন প্রার্থীর কাছে মোটা অঙ্কের টাকা দাবি করেছেন বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। আটক ব্যক্তি জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। উল্লেখ্য, আগামী ২৬ জুন গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

"