গ্রিন ও ক্লিন সিটির প্রতিশ্রুতি জাহাঙ্গীরের মান্নানকে কাজ করতে না দেওয়ার অভিযোগ

প্রকাশ : ০৯ জুন ২০১৮, ০০:০০

গাজীপুর প্রতিনিধি

গতকাল শুক্রবার আওয়ামী লীগের মেয়রপ্রার্থী জাহাঙ্গীর আলম সিটি করপোরেশনের দুটি স্থানে ইফতার ও দোয়া মাহফিলে আলোচনায় সভায় অংশ নিয়ে সবার দোয়া, সহযোগিতা ও সমর্থন চান। তিনি নির্বাচিত হলে একটি পরিকল্পিত নগরী গড়ে তোলার কথা উল্লেখ করেন। অন্যদিকে বিএনপির প্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকার নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে মেয়র এম এ মান্নানকে কাজ করার সুযোগ দিলে আজকে গাজীপুরবাসীর দুর্ভোগ থাকত না বলে অভিযোগ করেন।

নির্বাচনী প্রচারণার বিকল্প হিসেবে গাজীপুরে ইফতার ও দোয়া মহফিলে অংশ নিচ্ছেন সিটি নির্বাচনের প্রধান দুই প্রতিদ্বন্দ্বী মেয়রপ্রার্থী আওয়ামী লীগের জাহাঙ্গীর আলম এবং বিএনপির হাসান উদ্দিন। আনুষ্ঠানিক প্রচারণা শুরুর আগেই তারা দুজনেই এই পদ্ধতিতে ভোট প্রার্থনা ও নানা প্রতিশ্রুতি দিয়ে চলেছেন। আওয়ামী লীগ প্রার্থীর মিডিয়া সেল জানায়, শুক্রবার আওয়ামী লীগ মেয়রপ্রার্থী মো. জাহাঙ্গীর আলম ৩০ নম্বর ওয়ার্ড ছয়দানা বায়তুর জান্নাত সিদ্দিকিয়া জামে মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করেন। জুম্মা নামাজের পূর্বে মুসল্লিদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘আমি আপনাদেরই সন্তান। আমি নির্বাচিত হলে জননেত্রী শেখ হাসিনার সহযোগিতায় বিশেষ বরাদ্দ নিয়ে গাজীপুরকে একটি পরিকল্পিত গ্রিন সিটি এবং ক্লিন সিটি হিসাবে গড়ে তুলব।’

তিনি আরো বলেন, ‘সব শ্রেণি-পেশার মানুষ নিজ নিজ চাহিদা অনুযায়ী সুযোগ-সুবিধা ভোগ করতে পারবেন এমন একটি নগর গড়তে চাই।’ ২৬ জুন নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করার আহ্বান জানান। এ ছাড়া তিনি চান্দনা ঈদগাহ মাঠ, ৩২ নম্বর ওয়ার্ডের ঝাঝরে ও ৪১ নম্বর ওয়ার্ড পূবাইল কলেজ মাঠে আয়োজিত ইফতার ও দোয়া মাহফিলের আলোচনায় সবার দোয়া, সহযোগিতা ও সমর্থন চান।

এদিকে মহানগরের ১৬ নম্বর ওয়ার্ড চান্দনা ঈদগাহ মাঠে বাসন সাংগঠনিক থানা আয়োজিত ইফতার ও দোয়া মাহফিলে অংশ নেন মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। তিনি বলেন, গাজীপুর সিটি করপোরেশনের উন্নয়নে জাহাঙ্গীরের বিকল্প নাই। সরকার বাজেটে গাজীপুরের উন্নয়নে ১২ শ’ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছে। জুনের পরও আওয়ামী লীগই ক্ষমতায় থাকবে। আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী হিসাবে একমাত্র জাহাঙ্গীরই উন্নয়ন বাজেট সঠিকভাবে বাস্তবায়ন করতে পারবেন। আগামী ২৬ জুন নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে জাহাঙ্গীরকে জয়যুক্ত করে গাজীপুরের উন্নয়নে সহযোগিতা করুন।’

পূবাইল কলেজ মাঠে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি বলেন, বাংলাদেশে যখনই নৌকা মার্কা ক্ষমতায় ছিল দেশের উন্নয়ন হয়েছে। তিনি গাজীপুরে উন্নয়নের জন্য ২৬ জুন নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট দেওয়ার আহ্বান জানান।

এসব অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে মো. আবদুল বারী, এস এম সফিকুল ইসলাম বাবুল, মো. সফিকুল আলম, এস এম মোকসেদ আলম, মো. আফজাল হোসেন রিপন, মো. সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, কাজী ইলিয়াস আহমেদ, রিয়াজ মাহমুদ আয়নাল, মো. শাহাবুদ্দিন, কাজী আলী হোসেন মাস্টার, মো. কামরুল আহসান সরকার রাসেল, আজিজুর রহমান শিরিশ, মো. জাহিদ আল মামুন, হোসনে আরা জুলি প্রমুখ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বিএনপি প্রার্থীর মিডিয়া সেল জানায়, বিএনপি প্রার্থী হাসান উদ্দিন সরকার শুক্রবার গাজীপুর সিটি করপোরেশনের টঙ্গী মরকুন গোরস্তান (টঙ্গী পৌর গোরস্তান) জামে মসজিদে জুমার নামাজ আদায় করেন। এর আগে তিনি নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। এ সময় বৃষ্টিতে গাজীপুর নগরবাসীর দুর্ভোগের চিত্র তুলে ধরে হাসান সরকার বলেন, এই দুর্ভোগের জন্য কারা দায়ী নগরবাসী তা ভালো করেই অবগত আছেন। মেয়র এম এ মান্নানকে কাজ করার সুযোগ দিলে আজকে গাজীপুরবাসীর এই দুর্ভোগ থাকত না। মেয়র মান্নান সর্বশেষ প্রায় পৌনে ৪০০ কোটি টাকার টেন্ডার আহ্বান করেছিলেন। পারসেন্টেজ লাভ ও টেন্ডারবাজি করার সুযোগ না পেয়ে মেয়র মান্নানকে সেই কাজ করতে দেওয়া হয়নি। হাসান সরকার অভিযোগ করে বলেন, আওয়ামী লীগের মেয়রপ্রার্থী বিভিন্ন মহলে দৌড়ঝাঁপ করে ওই টেন্ডার স্থগিত করিয়েছিলেন; যা আজ কারোরই অজানা নয়। সন্ধ্যায় তিনি টঙ্গীর আউচপাড়া সুরতরঙ্গ রোডে টঙ্গীর ঐতিহ্যবাহী নূর বকস্ পরিবারের আমন্ত্রণে ইফতার মাহফিলে শরিক হন।

"