এ মাসেই পারমাণবিক পরীক্ষাকেন্দ্র ভেঙে দেবে উ. কোরিয়ার

প্রকাশ : ১৪ মে ২০১৮, ০০:০০

প্রতিদিনের সংবাদ ডেস্ক

আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যেই সবাইকে জানান দিয়ে পারমাণবিক পরীক্ষাকেন্দ্র ভাঙার ঘোষণা দিয়েছে উত্তর কোরিয়া। ওই অনুষ্ঠানে বিদেশি সাংবাদিকরা উপস্থিত থাকবেন বলে জানানো হয়েছে। উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্র পরিচালিত বার্তা সংস্থা কেসিএনএতে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে বিবিসি গতকাল রোবাবার এ খবর জানায়। খবরে বলা হয়, আগামী মাসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে বৈঠকে বসবেন উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন। বহু প্রতীক্ষিত এই বৈঠকের তিন সপ্তাহ আগেই তাদের পারমাণবিক পরীক্ষাকেন্দ্র ভেঙে ফেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে উত্তর কোরিয়া সরকার। পিয়ংইয়ং জানিয়েছে, আগামী ২৩-২৫ মের মধ্যে পারমাণবিক পরীক্ষাকেন্দ্র ভাঙার কাজ সম্পন্ন করা হবে। এ জন্য এখন থেকেই কারিগরি পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে দেশটি। এপ্রিলে দক্ষিণ কোরীয় কর্মকর্তারা এক বিবৃতিতে বলেছিলেন যে, কিম মে মাসে পারমাণবিক পরীক্ষা কেন্দ্র বন্ধ করে দেবেন। তারা আরো বলেছিলেন, কেন্দ্রটি বন্ধ করার সময়ে দক্ষিণ কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র থেকে বিশেষজ্ঞদের নিমন্ত্রণ জানানো হবে। তবে গত শনিবার কেসিএনএতে দেওয়া বিবৃতিতে, এমন কোনো কথা উল্লেখ করেনি উত্তর কোরিয়া।

আগামী ২৩ থেকে ২৫ তারিখের মধ্যে ভাঙন সম্পন্ন করার কথা জানালেও ‘পুঙ্গে-রি’ পারমাণবিক পরীক্ষাকেন্দ্রটি ভাঙার জন্য নির্দিষ্ট কোনো দিন ঠিক করা হয়নি। উল্লেখিত তিন দিনের মধ্যে আবহাওয়ার ওপর ভিত্তি করে ভাঙন শুরু করা হবে। বিস্ফোরক ব্যবহার করে ধ্বংস করে দেওয়া হবে সব সুড়ঙ্গ। খালি করে দেওয়া হবে সব প্রকারের পর্যবেক্ষণ স্থাপনা, গবেষণা ভবন ও নিরাপত্তা পোস্ট।

ভাঙন প্রক্রিয়া প্রত্যক্ষ করার জন্য দক্ষিণ কোরিয়া, চীন, যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়া থেকে সাংবাদিকদের নিমন্ত্রণ জানানো হবে। দেশের উত্তর-পূর্বে পার্বত্য অঞ্চলে অবস্থিত এই কেন্দ্রটিই উত্তর কোরিয়ার প্রধান পারমাণবিক স্থাপনা বলে ধারণা করা হয়। ২০০৬ সাল থেকে এখন পর্যন্ত কেন্দ্রটি থেকে ছয়টি পারমাণবিক পরীক্ষা চালানো হয়েছে।

"