রাজশাহীর বাজারে লিচু পিলে কাঁপানো দাম

প্রকাশ : ১৪ মে ২০১৮, ০০:০০

রাজশাহী ব্যুরো

মধুমাস জ্যৈষ্ঠের আগেই রাজশাহীর বাজারে এসেছে দেশি জাতের লিচু। ক্রেতারা জানিয়েছেন, দাম শুনে তাদের বুকে কাঁপন ধরে যায়। তবে বিক্রেতারা বলছেন, সরবরাহ কম থাকায় দাম বেশি। কিছু দিন পর বেশি পরিমাণে লিচু উঠলে সাধারণের নাগালের মধ্যে কমে আসবে দাম। গতকাল রোববার সকালে রাজশাহী মহানগরীর সাহেব বাজারে লিচু বিক্রেতা মাসুদ রানা বলেন, মৌসুমের প্রথম লিচু গত শুক্রবার থেকে বিক্রি শুরু করেছি। ১০০ লিচু ৩০০ থেকে ৩২০ টাকা দামে বিক্রি করছেন। কিছু দিন পর বেশি পরিমাণে লিচু উঠলে ১৫০ থেকে ২০০ টাকায় নেমে আসবে। এখন দাম বেশি হওয়ায় ক্রেতা কম। চড়া দামে বাগান কেনায় বেশি দামেই বিক্রি করতে হচ্ছে বলেও দাবি করেন মাসুদ।

আরেক লিচু বিক্রেতা আফজাল হোসেন বলেন, বেশির ভাগ ক্রেতাই দাম শুনে চমকে উঠে চলে যাচ্ছে। বৃষ্টির কারণে আবহাওয়া ঠান্ডা থাকার কারণে বিক্রি কম হচ্ছে বলেও জানান তিনি। কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর রাজশাহীর উপ-পরিচালক দেব দুলাল ঢালি গতকাল রোববার প্রতিদিনের সংবাদকে বলেন, ‘রাজশাহীতে ৪৭৬ হেক্টর জমিতে লিচু বাগান রয়েছে। এখন ছোট-বড় মিলিয়ে লিচু বাগানের সংখ্যা ৯০টির বেশি। বাগান ছাড়াও বসতবাড়িতে দেশি লিচুর চাষ হচ্ছে। উচ্চফলনশীল চায়না-৩-এর চাষ পরিমাণে কম হলেও বোম্বে ও মাদ্রাজি জাতের লিচু চাষ হয়েছে বেশি। উচ্চফলনশীল চায়না-৩ চাষের জন্য আমরা চাষিদের উদ্বুদ্ধ করছি। এবার রাজশাহী অঞ্চলে ফুল ফোটা থেকে লিচুর গুটি আসা পর্যন্ত বৃষ্টিপাত তেমন হয়নি। আবহাওয়াও ছিল নাতিশীতোষ্ণ। সে কারণে এবার লিচুর ভালো উৎপাদন হয়েছে।’

"