পিকনিকে আসা স্কুলছাত্রীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ

প্রকাশ | ১৩ এপ্রিল ২০১৮, ০০:০০

বাগেরহাট প্রতিনিধি

বাগেরহাটের মোংলায় শিক্ষক ও সহপাঠীদের সঙ্গে পিকনিকে গিয়ে পঞ্চম শ্রেণিতে পড়–য়া এক স্কুলছাত্রী দলবদ্ধ ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় গত বুধবার রাতে ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে মোংলা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করেছেন। ধর্ষণের শিকার ওই স্কুলছাত্রী খুলনার দাকোপের সেন্ট জোসেফ স্কুলে পড়ে। চার ধর্ষক হলো সাহেব আলীর ছেলে মাসুদ, জয়নালের ছেলে শাজাহান এবং শফি ও খলিল এ দুজনের পিতার নাম মামলায় অজ্ঞাত বলে উল্লেখ করা হয়েছে। মামলার আসামি চার ধর্ষকের বাড়ি বাগেরহাটের মোংলার স্থায়ী বন্দর এলাকায় বলে পুলিশ নিশ্চিত করেছে।

পুলিশ জানায়, ওই ছাত্রী স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষিকা ও অন্যান্য শিক্ষার্থীর সঙ্গে গত সোমবার সকালে মোংলার স্থায়ী বন্দর এলাকায় পিকনিক কর্নারে পিকনিক করতে যায়। এ সময় স্থানীয় চার বখাটে ওই স্কুলছাত্রীকে মোংলা বন্দর দেখাবার কথা বলে ফুসলিয়ে বন্দরের প্রকৌশল ভবনের পেছনে নিয়ে যায়। সেখানে ঝোপঝাড়ের মধ্যে নিয়ে গিয়ে তারা পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এরপর শিশুটি অসুস্থ হয়ে পড়ে। পরে সে বাড়ি ফিরে গিয়ে ঘটনাটি তার মাকে জানায়। ঘটনার দুই দিন পর ধর্ষণের শিকার শিশুকে নিয়ে গত বুধবার রাতে তার মা বাদী হয়ে মোংলা থানায় চার ধর্ষকের নাম উল্লেখ করে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে-২০০০-এর ৯ (৩) ধারায় মামলা করেন।

মোংলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মো. তুহিন জানান, দলবদ্ধ ধর্ষণের শিকার ওই স্কুলছাত্রীর মা বাদী হয়ে মোংলা থানায় মামলা করেছেন। এ ঘটনায় পুলিশ ধর্ষকদের আটকে অভিযান শুরু করেছে, তবে এখনো কেউকে আটক করতে পারেনি।

 

"